বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
ঢাকা সময়: ১৫:৫২

ঢাকায় ব্যাটারি চালিত রিকশা বন্ধের নির্দেশ

ঢাকায় ব্যাটারি চালিত রিকশা বন্ধের নির্দেশ

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : ব্যাটারি চালিত রিকশা এবং মোটরসাইকেল রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনার প্রধান কারণ বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি রাজধানী শহর ঢাকায় ব্যাটারি চালিত রিকশা যেন চলতে না পারে সে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন।
 
বুধবার (১৫ মে) বনানীতে বিআরটিএর সদর কার্যালয়ে আয়োজিত 'সড়ক পরিবহন উপদেষ্টা পরিষদের সভা'য় তিনি এ নির্দেশ দেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, ব্যাটারি চালিত কোন গাড়ি (তিন চাকার) যেন ঢাকা সিটিতে না চলে।
 
আমরা ২২টি মহাসড়কে নিষিদ্ধ করেছি। শুধু নিষেধাজ্ঞা নয়, চলত্ব যেন না পারব সে ব্যবস্থা নিতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, ঈদের আগে ও পরে অনেক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এগুলো মন্ত্রী নয়, মানুষ হিসেবে আমাদের কষ্ট দেয়। আমাদের দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর প্রধান কারণ মোটরসাইকেল ও অটোরিকশা। এক অটোরিকশায় ৭ থেকে ৮ জন থাকে। একটা দুর্ঘটনা হলে অটোরিকশার সকলেই মারা যায়। আর মোটরসাইকেল তো আরেক উপদ্রব।
 
দুর্ঘটনা হলে তো কাউকে কেউ কিছু বলে না। শুনতে হয় আমাকে। কেউ বলে না বিআরটিএ চেয়ারম্যান কী করছে, সবাই আমাকে বলে। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ২০ বছরের পুরোনো বাস কীভাবে সড়কে চলাচল করে।  সড়কে শৃঙ্খলা না ফিরলে কখনোই দুর্ঘটনা কমবে না। এর আগে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র ঢাকার মধ্যে অটোরিকশা বন্ধে সম্মত্তি জানান।
 
সভায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ভয়াবহ ব্যাপার যখন রিকসা চালকরা দুপা ওপরে উঠিয়ে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালায়। অনেক প্রতিবন্ধী আছেন যারা চোখে কিছুটা কম দেখেন তারাও এই রিকশা নিয়ে নেমে পড়েন।
 
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, সিদ্ধান্তে আসা দরকার যে ঢাকায় ইজি বা অটোরিকশা চলবে না। এটি অতন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।  সভায় বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাজাহান খান, সড়ক ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নূরী, বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সড়ক পরিবহন ও শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাহজাহান খান মেয়াদোত্তীর্ণ ও লক্করঝক্কর গাড়িগুলোকে ডাম্পিং নয়, সম্পূর্ণভাবে ধ্বংসের সুপারিশ করেন।
উত্তরণবার্তা/এসএ

  মন্তব্য করুন
     FACEBOOK