গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলে দেশ উন্নত হয়: প্রধানমন্ত্রী     দেশে পর্যাপ্ত পশু আছে সহনীয় থাকবে দাম     সারাদেশে কোরবানিযোগ্য পশু ১ কোটি ১৬ লাখ     ইংল্যান্ড তারকার জন্য মোটা টাকা খরচ করতে রাজি রিয়াল     আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভা কাল     মহাসড়ক ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠে পশুর হাট বসতে দেয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী     ভালসারটান ওষুধ বাজার থেকে প্রত্যহার করার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী     বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠানোয় প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর আহ্বান    

সৌদি আরবে আবার ধরপাকড়

  জুলাই ০৮, ২০১৮     ১৪     ১০:১৯ পূর্বাহ্ন     বিদেশ
--

উত্তরণবার্তা আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সৌদি আরবে আবারও ধরপাকড় শুরু হয়েছে। রাজপরিবারের সদস্য, মন্ত্রী এবং শীর্ষ স্থানীয় ব্যবসায়ীদের আটক করা হচ্ছে। গত মাসে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান শেষ করার ঘোষণা দেয়ার পর নতুন করে অভিযান শুরু হয়েছে।

কোনো অভিযোগ ছাড়াই তাদেরকে আটক করা হচ্ছে। এর আগে যাদেরকে আটক করা হয়েছিল তাদের অনেককে এখনও আটকে রাখা হয়েছে। পরিবার কিংবা আইনজীবীদের সঙ্গে তাদেরকে কোনো যোগাযোগ করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। খবর আলজাজিরার।

সম্প্রতি আটক ব্যক্তিদের মধ্যে রাজপরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্য প্রিন্স তুর্কি বিন আবদুল্লাহ রয়েছেন। তিনি এক সময় রিয়াদের গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। দেশটির প্রয়াত বাদশাহ আবদুল্লাহর ছেলে তিনি। আটক করা হয়েছে তিনজন বিলিয়নিয়ারকে।

সৌদির খ্যাতনামা ও প্রভাবশালী একটি ব্যাংকের মালিক মাহফুজ পরিবারের সদস্য তারা। ব্যাপক নিরাপত্তা ঘেরা কারাগারে তাদেরকে আটকে রাখা হয়েছে। কারও কারও সঙ্গে ‘অমানবিক ও বাজে আচরণ’ করা হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

সরকারি কর্মকর্তা এবং আটককৃতদের স্বজনরা জানিয়েছেন, কোনো রকম অভিযোগ ছাড়াই আটক করে কারাগারে রাখা হচ্ছে। এমনকি পরিবারের সদস্য এবং আইনজীবীদেরও আটক ব্যক্তিদের সঙ্গে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না। দেখা করতে দেয়া হলেও সেটা খুব কম সময়ের জন্য।

এ ব্যাপারে দেশটির সরকারের মুখপাত্র কোনো রকম মন্তব্য করতে রাজি হননি। যদিও সৌদির ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জানিয়েছেন, কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি এবং সন্ত্রাসী কার্যক্রমে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।

গত বছরের নভেম্বরে মাঝামাঝিতে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান শুরু করেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এক রাজকীয় ডিক্রি জারি করে ওই অভিযান চালানো হয়। প্রথমবারেই ১১ জন প্রিন্স, চারজন মন্ত্রী এবং প্রায় ডজনখানেক সাবেক মন্ত্রীকে আটক করা হয়।

উত্তরণবার্তা/এআর



রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের সূচি

  জুন ০৬, ২০১৮     ৩৯৯২

আমের কেজি ৭ টাকা

  জুন ২৭, ২০১৮     ১৪৮১

পুরনো খবর