টানা জয়ে শেষ ষোলোর দ্বারপ্রান্তে পুতিনের রাশিয়া     মেসিতেই অনুপ্রেরণা খুঁজছে আর্জেন্টিনা     অক্টোবরে নির্বাচনকালীন সরকার, ছোট মন্ত্রিপরিষদ : সেতুমন্ত্রী     ময়মনসিংহে মাইক্রো- অটো সংঘর্ষ, নিহত ৩     প্রধানমন্ত্রীর গণসংবর্ধনা ২১ জুলাই     রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ     কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ     জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ঢাকায় আসছেন    

গৃহকর্মীর সারা শরীরে গরম খুনতির ছ্যাঁকা, গৃহকর্তা গ্রেফতার

  জুন ০৪, ২০১৮     ৫৬     ১১:০৭ পূর্বাহ্ন     আইন-আদালত
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : খালেদা ওরফে রিয়া (১৪)। কাজ করত কামরাঙ্গীরচরের মাসুদুর রহমান ও ইতি বেগম দম্পতির বাসায়। বাসার কাজে সামান্য ভুল করলেই অমানবিক নির্যাতন করা হতো রিয়াকে। গায়ে গরম পানি ঢেলে দেয়া ও গরম খুনতির ছ্যাঁকা দিত তাকে। এভাবে পুরো শরীরে তার দগদগে দাগ।

সর্বশেষ ২৮ এপ্রিল থালাবাসন ঠিকভাবে টেবিলে না রাখার কারণে গরম খুনতি দিয়ে ছ্যাঁকা দেয় ইতি। মারধর করে গৃহকর্তা মাসুদুর রহমান। নির্যাতন সইতে না পেরে ওই বাসা থেকে পালিয়ে আসে রিয়া। কামরাঙ্গীচর থানা পুলিশ তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে ভর্তি করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। রোববার পুলিশ গৃহকর্তা মাসুদুর রহমানকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে। তবে মামলার প্রধান আসামি ইতি বেগমকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এদিকে রোববার ঢাকা মেট্রোপলিটন আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে নির্যাতনের শিকার গৃহকর্মী রিয়ার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়ছে। আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে রিয়া বলেছে, বাসার কাজে সামান্য ভুল করলেই তাকে গরম খুনতির ছ্যাঁকা দিত ইতি বেগম।

আর মারধর করত তার স্বামী মাসুদুর রহমান। গত কয়েক মাস ধরে তাকে এভাবেই নির্যাতন করে আসছিল। বাসার কারও সঙ্গে যোগাযোগ পর্যন্ত করতে দিত না তারা। কামরাঙ্গীচর থানার ওসি শাহীন ফকির  বলেন, এ রকম নির্যাতন একজন মানুষ মানুষকে করতে পারে সেটা নিজ চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা কঠিন।

উত্তরণবার্তা/এআর
 



পুরাতুন খবর