শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮
ঢাকা সময়: ১৯:৫৯

বয়স যদি আঠারো হয়-ভোটার হতে দেরি নয়

উত্তরণ বার্তা ডেস্ক : ভোট মানুষের অধিকার। সাধারণত, যিনি ভোট প্রয়োগ করেন তিনি ভোটার নামে পরিচিত। জাতীয় ভোটার দিবস আজ। ‘বয়স যদি আঠারো হয়-ভোটার হতে দেরি নয়’—এ প্রতিপাদ্য ধারণ করে আজ মঙ্গলবার দিবসটি পালন করছে নির্বাচন কমিশন।

দেশে এবার তৃতীয়বারের মতো দিবসটি পালিত হচ্ছে। ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে গণতন্ত্র, নির্বাচন ও ভোটাধিকার বিষয়ে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে প্রতিবছরের ১ মার্চ দিবসটি উদযাপনের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। এক বছর পালনের পর এই তারিখ পরিবর্তন করে ২ মার্চ করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষে নানান কর্মসূচি পালন করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচন ভবন ও মাঠ পর্যায়ের অফিসগুলোতে এরই মধ্যে আলোকসজ্জা করা হয়েছে এবং ভবনের সামনের রাস্তা ব্যানার, ফেস্টুন দিয়ে সাজানো হয়েছে। সর্বশেষ হালনাগাদ করা চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশও রয়েছে কর্মসূচিতে। এ তথ্য জানিয়েছেন ইসির যুগ্ম-সচিব আসাদুজ্জামান।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আজ সকালে নির্বাচন ভবনের সামনের চত্বর থেকে বেলুন উড়িয়ে কমিশন ভোটার দিবস উদযাপন কার্যক্রম উদ্বোধন। এরপর নির্বাচন ভবনের অডিটোরিয়ামে ভোটার দিবসের গুরুত্ব ও তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা সভা। এতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রধান অতিথি হিসেবে ও নির্বাচন কমিশনাররা বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এছাড়া বিকেল ৩টায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার সব আঞ্চলিক, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে জুম অ্যাপের মাধ্যমে ভার্চুয়াল সভায় অংশ নেবেন। দিবসটি উপজেলা, জেলা ও আঞ্চলিক পর্যায়েও যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে আজ।  জাতীয় ভোটার দিবস ২০২১ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনাররা এবং নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব বাণী দিয়েছেন।

বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, গণতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় একজন ভোটার তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করে সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করেন এবং তার নির্বাচিত প্রতিনিধির মাধ্যমে রাষ্ট্র পরিচালনায় অংশগ্রহণ করে থাকেন। এ প্রক্রিয়ায় নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নির্বাচন কমিশন ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিয়মিত ভিত্তিতে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করে আসছে। সর্বশেষ ২০১৯ সালের হালনাগাদকরণ কার্যক্রমে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে নিবন্ধিতদের এবং ২০২১ সালের ২ মার্চ পর্যন্ত পরিচালিত হালনাগাদ কার্যক্রমে নিবন্ধিতদের রিভাইজিং অথরিটির নিকট উত্থাপিত দাবি, আপত্তি নিষ্পত্তির পর চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ একটি প্রশংসনীয় অর্জন। তিনি গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনকে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করার আহবান জানিয়েছেন।
উত্তরণ বার্তা/এআর

  মন্তব্য করুন
     FACEBOOK