সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ঢাকা সময়: ২২:৫৫

ঝালকাঠিতে ১২৫০০ হেক্টরে বোরো ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে মাঠে কৃষকদের প্রস্তুতি শুরু

ঝালকাঠিতে ১২৫০০ হেক্টরে বোরো ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে মাঠে কৃষকদের প্রস্তুতি শুরু

উত্তরণবার্তা  প্রতিবেদক : জেলায় আমন ধান কাটা শুরু না হলেও বোরো ধান চাষের প্রস্তুতি শুরু করেছে কৃষকরা। তারা বিএডিসির বীজ বিক্রয় কেন্দ্র ও ডিলারদের কাছ থেকে বিভিন্ন জাতের বীজ সংগ্রহ করে বীজতলা করতে মাঠে নেমেছে। ঝালকাঠি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. ফজলুল হক জানান, জেলায় এ বছর ১২ হাজার ৫০০ হেক্টরে বোরো ধানের আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এরমধ্যে ১৮০০ হেক্টরে হাইব্রিড ধানের আবাদ করা হবে। জেলা সদরের বিএডিসি বীজ কেন্দ্র থেকে বিক্রির জন্য বরাদ্দ দেয়া ৪ টন বীজ ধান বিক্রি শেষ হয়েছে এবং জেলার ২৫ জন ডিলারের মাধ্যমে ৯৭ টন বরাদ্দকৃত বীজ ধান বিক্রি হচ্ছে।

জেলার ৪টি উপজেলার মধ্যে সদর উপজেলা ও নলছিটি উপজেলা বোরো প্রধান। এই দুই উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে জলাবদ্ধতার কারনে আমন ধানের আবাদ করা যায় না। ঝালকাঠি সদর উপজেলার বাসন্ডা ও বিনয়কাঠি এবং নলছিটি উপজেলার ভৈরবপাশা ও মগড় ইউনিয়নের ৩০ হাজার একর জুড়ে জলাবদ্ধতা থাকে। এই সকল ইউনিয়নের জলাবদ্ধ থাকা গ্রামগুলিতে কৃষকরা একমাত্র বোরো ধান ফসলের উপর নির্ভরশীল থাকে। এই সকল গ্রামগুলি মধ্যে থাকা খাল এবং সংশ্লিষ্ট নদীর অংশ ভরাট হওয়ায় পানি ওঠানামা করতে না পারায় পুরো বর্ষাকাল জুড়েই প্রায় ৫মাস এলাকাগুলির ফসলের মাঠ পানিতে তলিয়ে থাকে। শীতের প্রবাহ শুরু হওয়ার সাথে-সাথে জলাবদ্ধ জমি থেকে পানি নেমে যাওয়ার সাথে-সাথে আগাছা পরিষ্কার করে এই গ্রামগুলির কৃষকরা আগাম বোরো আবাদ নেমে যায়।
উত্তরণবার্তা/এআর

  মন্তব্য করুন
     FACEBOOK