বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮
ঢাকা সময়: ১৫:৫০

জেলায় জেলায় চলছে বাস

উত্তরণ বার্তা প্রতিবেদক : করোনা পরিস্থিতিতে সর্বাত্মক লকডাউনে বেশ কিছুদিন বন্ধ থাকার পর জেলার অভ্যন্তরে আবার বাস চলাচল শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে কয়েকটি শর্তে রাজধানীসহ দেশের সব জেলায় কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়। তবে দূরপাল্লার বাস বন্ধ রয়েছে। রাজধানীর বিভিন্ন রুটে চলছে বাস। বিভিন্ন টার্মিনাল থেকে যাত্রা শুরু করে রাজধানীর ভেতরে যাতায়াত করছে এগুলো। নগরীর বিভিন্ন স্থান ঘুরে সড়কে বাস চলাচালের দৃশ্য দেখা গেছে। অনেক জায়গাতেই বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন যাত্রীরা। লাইন ধরে গণপরিবহনে উঠছেন তারা। তবে স্বাস্থবিধি উপেক্ষা করার খবর পাওয়া গেছে।

ঢাকা ছাড়াও বিভিন্ন জেলা থেকে বাস চালুর খবর পাওয়া গেছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী, এক জেলার বাস অন্য জেলায় ঢুকতে পারছে না। এরআগে বৃহস্পতিবার থেকে জেলার অভ্যন্তরে চালু হতে যাওয়া গণপরিবহনের জন্য পাঁচ শর্ত জারি করে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষন (বিআরটিএ)। বুধবার রাতে এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। বিআরটিএ'র পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ার) শীতাংশু শেখর বিশ্বাস স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পাঁচ শর্ত সাপেক্ষে চলবে গণপরিবহন।

এগুলো হলো- আন্তঃজেলা গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। কোনোভাবেই মোটরযানের ফিটনেস সনদে উল্লেখিত আসনের অর্ধেকের বেশি যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। বিদ্যমান ভাড়ার ৬০ শতাংশের বেশি নেওয়া যাবে না। ট্রিপের শুরু ও শেষে জীবাণুনাশক দিয়ে গাড়ি জীবাণুমুক্ত করতে হবে। চালক শ্রমিক যাত্রীকে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। করোনা সংক্রমণ রোধে ৫ এপ্রিল লকডাউন চলছে। সেদিন থেকে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ। মাঝে কয়েকদিন মহানগর এলাকায় অর্ধেক আসন খালি রেখে বাস চলাচল করে। ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া 'সর্বাত্মক' লকডাউনে দূরপাল্লার সঙ্গে সব ধরনের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। এতে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমিকরা গণপরিবহন চালুর দাবিতে আন্দোলন করছেন। এ পরিপ্রেক্ষিতে জেলার অভ্যন্তরে গণপরিবহন চালুর অনুমতি দিয়ে বুধবার প্রজ্ঞাপন জারি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।
উত্তরণ বার্তা/এআর

 

  মন্তব্য করুন
     FACEBOOK