সংসদ অধিবেশন শুরু     কৃষিতে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উদাহরণ : কৃষিমন্ত্রী     যে সরকারই আসুক ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক সবসময় ভালো থাকবে : ড. গওহর রিজভী     শিক্ষাখাতে প্রয়োজনীয় অর্থবরাদ্দে সরকার বদ্ধপরিকর : শিক্ষামন্ত্রী     ঢাকাস্থ শ্রীলংকার দূতাবাসে শোক বইয়ে স্বাক্ষর করছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী     সিপিডি’র বক্তব্য অনভিপ্রেত ও অগ্রহণযোগ্য : তথ্যমন্ত্রী     জায়ানের পরিবারের প্রতি সান্ত্বনা জানাতে শেখ সেলিমের বাসায় প্রধানমন্ত্রী     জায়ানকে শেষবারের মতো দেখতে বনানীতে শেখ হাসিনা    

স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকেও এগিয়ে আসতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

  এপ্রিল ১৫, ২০১৯     ১৬     ৭:১৪ অপরাহ্ণ     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানকেও এগিয়ে আসতে হবে।
তিনি ‘জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ-২০১৯’ উপলক্ষে আজ এক বাণীতে এ কথা বলেন।
‘সকলের সুস্থতা নিশ্চিতকল্পে ‘স্বাস্থ্যসেবা অধিকার-শেখ হাসিনার অঙ্গীকার’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আগামীকাল মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল থেকে ‘জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ’ পালিত হচ্ছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করে শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান সরকার স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নসহ স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। যার সুফল জনগণ ইতোমধ্যে পেতে শুরু করেছে। তিনি বলেন, চিকিৎসা সেবাকে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রসারণে যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। স্বাস্থ্যখাতের সাফল্যের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ অর্জন করেছে এমডিজি অ্যাওয়ার্ড, সাউথ সাউথ অ্যাওয়ার্ড ও গ্যাভি অ্যাওয়ার্ডের মতো আন্তর্জাতিক পুরস্কার। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে চিকিৎসা সেবার মানোন্নয়ন,অবকাঠামোগত উন্নয়ন, চিকিৎসা শিক্ষা ও জনশক্তি উন্নয়ন, পর্যাপ্ত সংখ্যক জনবল নিয়োগ, পরিবার পরিকল্পনা, নার্সিং সেবার উন্নয়ন, স্বাস্থ্যখাতে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার, আইন ও নীতিমালা প্রণয়নসহ স্বাস্থ্যখাতে তাঁর সরকার ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকা- বাস্তবায়ন করেছে। ফলে সমাজের সকল স্তরের জনগণের প্রয়োজনীয় মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে ভোগান্তি বহুলাংশে লাঘব হয়েছে।
তিনি বলেন,গ্রাম পর্যায়ে সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রতি ৬ হাজার গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জন্য একটি করে কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত নির্মিত প্রায় ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিকের কার্যক্রম চালু হয়েছে। প্রায় ১৪ হাজার প্রশিক্ষিত কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারের (সিএইচসিপি) মাধ্যমে সারা বাংলাদেশে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হচ্ছে।
কমিউনিটি ক্লিনিকে ৩০ প্রকারের ওষুধ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয় এ কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ পর্যন্ত ৮৫ কোটিরও বেশি পরিদর্শনের মাধ্যমে গ্রামীণ জনগণ কমিউনিটি ক্লিনিক হতে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণ করেছেন। স্বাস্থ্যখাতে সরকারের এ উদ্যোগ সারাবিশ্বে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে।
শেখ হাসিনা বলেন,জনসাধারণের মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিতদের দায়িত্ববোধ নিশ্চিত করতে ‘জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ-২০১৯’ পালন খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে তিনি মনে করেন।
প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

উত্তরণবার্তা/দীন



সংসদ অধিবেশন শুরু

  এপ্রিল ২৪, ২০১৯

বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী ক্রিকেটার

  এপ্রিল ২৪, ২০১৯     ৯২৩

যেসব পানীয় কমাবে ওজন

  এপ্রিল ১৬, ২০১৯     ৫৬৮

ধোনি কাণ্ডে যা বললেন সৌরভ

  এপ্রিল ১৩, ২০১৯     ৫৩৭

‘রাফিরে, আমার মা রে...’

  এপ্রিল ১১, ২০১৯     ৪১৩

নতুন মনুষ্য প্রজাতির সন্ধান!

  এপ্রিল ১৩, ২০১৯     ৩০৬

পুরনো খবর