আজ - রবিবার, ২০ মে ২০১৮, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | ঢাকা সময়: ১০:০২ অপরাহ্ন
বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিলেও গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে : সেতুমন্ত্রী     ২ জুন থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট     আগামী নির্বাচনে বড় বিজয়ে আত্মবিশ্বাসী আওয়ামী লীগ     বঙ্গোপসাগরে ৬৫ দিন মাছ ধরা নিষিদ্ধ     স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করে নজির স্থাপন করেছে বাংলাদেশ: স্পিকার     বরিশালে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত     আন্তর্জাতিক একক ব্যবহার নিশ্চিত করা গেলে বাণিজ্য সহজীকরণের কাজ ত্বরান্বিত হবে : শেখ হাসিনা     একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পে স্বাবলম্বী হচ্ছে গ্রামের হতদরিদ্র লাখো পরিবার    

খালেদা জিয়ার নামে তার এক আত্মীয় মামলা করেছে

  মে ১০, ২০১৮     ৩৬     ৮:১১ অপরাহ্ণ     রাজনীতি
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদকঃ  আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নামে তার এক আত্মীয় দুর্নীতির মামলা করেছে। এক্ষেত্রে আমাদের কি করার আছে?
শেরপুরের নকলা উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে আজ বৃহস্পতিবার উপজেলার শিক্ষক ও স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ধাত্রীদের এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।
মতিয়া চৌধুরী বলেন, ওয়ান ইলেভেনের পর সাইদ ইস্ক্কাান্দারের আপন ভায়েরা ভাই জেনারেল মাসহুদ বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে এতিমের টাকা চুরি করার অভিযোগ এনে মামলা করেন ।
তিনি বলেন, এ দলটি ধাপ্পাবাজির দল। এ দলের নেতা খালেদা জিয়া দুর্নীতি করে জেলে গেছেন। এরা এতিমের টাকা মেরে খেয়ে জনগনকে ধাপ্পা দেয়। তাদের নেতা তারেক রহমান দন্ডপ্রাপ্ত আসামী। সে তাঁর স্ত্রী জোবায়েদা ও মেয়ে জাইমা রহমান পাসপোর্ট সারেন্ডার করেছে।
তিনি বলেন, তারা বিদেশে বসে কোম্পানী খুলে ব্যবসা করছে। বিদেশে বসে বিদেশী নাগরিক হয়ে ব্যবসা করে এটা খালেদা জিয়া ও বিএনপি’র শীর্ষ নেতৃত্ব জানতো। তারা এসব তথ্য গোপন রেখে তাঁকে বিএনপি’র কো চেয়ারম্যান বানিয়েছে। এটা ধাপ্পাবাজি ছাড়া আর কি হতে পারে।
মতিয়া চৌধুরী বলেন, দেশের মানুষের সাথে প্রতারণা করে রাজনীতি হয় না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আমরা এসব রাজনীতি জানিনা, বুঝিনা।
সমাবেশে কৃষিমন্ত্রীর সাথে শেরপুরের জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, নকলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান লিটন, নালিতাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. জিয়াউল হক, সাধারণ সম্পাদক মো. ফজলুল হক, পৌর মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিকী প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে কৃষিমন্ত্রী তাঁর টিআর-কাবিখার অর্থ থেকে গ্রামের যেসব এলাকায় প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ধাত্রী রয়েছে এমন ১০টি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ও একটি কমিউনিটি ক্লিনিকের ধাত্রীদের হাতে ডেলিভারী বেড তুলে দেন। এছাড়া ১৮৩টি সরকারী- বেসরকারী ও মাদ্রাসার শিক্ষকদের হাতে লোহার বেঞ্চ প্রদান করেন।
পরে মতিয়া চৌধুরী নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের স্বাধীনতা মঞ্চে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। এ সময় তিনি বলেন, বিএনপি ধানের শীষ মার্কা নিয়ে উপজেলা, পৌরসভা নির্বাচন করে। অথচ সংসদ নির্বাচন করে না। তাদের দ্বিচারিতা মানুষ বোঝে। তাই যথাসময়ে নির্বাচন হবে। তারা নির্বাচনে আসলে ভাল। না আসলে নির্বাচন ঠেকে থাকবে না।
সমাবেশ শেষে মন্ত্রী উপজেলার ১৬১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের হাতে ৮৪০ জোড়া লোহার বেঞ্চ প্রদান করেন। এছাড়া বারোমারী খ্রিস্টান মিশনের প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ধাত্রীসহ ৫টি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে একটি করে ডেলিভারী বেড প্রদান করেন।

উত্তরণবার্তা.কম/দীন



মিথ্যে বললেই ধরে ফেলবে মোবাইল!

  এপ্রিল ২১, ২০১৮     ১০৪৩

পুরাতুন খবর