বদলে গেল বাংলাদেশ-ভারত দিবারাত্রির টেস্টের সময়     বাদলের স্বপ্নের কালুরঘাট সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হবে আগামী বছর : সেতুমন্ত্রী     খুলনায় আজ শুরু হচ্ছে শেখ রাসেল আন্তর্জাতিক টেনিস     ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সব ঘরে বিদ্যুৎ : প্রধানমন্ত্রী     প্রধানমন্ত্রী ৭ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন আজ     মেলায় রাজস্ব আদায় ৩ হাজার কোটি টাকা ছাড়াবে     রেল দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবার পাবে সোয়া ১ লাখ টাকা     প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় শেখ হাসিনার কোনো বিকল্প নেই : গণপূর্তমন্ত্রী    

আসন্ন উপজেলা নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হবে : সিইসি

  ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০১৯     ১৩০     ৬:৪২ অপরাহ্ণ     নির্বাচন
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : প্রতিদ্বন্দ্বী যোগ্য প্রার্থীদের অংশগ্রহণে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) খান মো. নূরুল হুদা।
তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন সব সময় চায়, নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হবে। নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে এবং সকল দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। আমি বিশ্বাস করি এ নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক হবে। কারণ এই স্থানীয় নির্বাচনে দলের মধ্যে অথবা বাইরে অনেক যোগ্য লোক থাকেন, যারা নির্বাচনে প্রতিযোগিতা করেন। সুতরাং প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন হবে এর মধ্যে কোন সন্দেহ নেই।’
রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (ইটিআই) ভবনে আজ উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন।
সিইসি বলেন, ‘আপনাদের কোনো আচরণের কারণে যদি নির্বাচন ব্যাহত হয়, বিঘিœত হয়- সেটা কিন্তু আমরা কঠোরভাবে দমন করব। আপনারা কেবল আইন-কানুনের ভিত্তিতে নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন করবেন। আপনাদের কোনো দল নেই, মত নেই, রাজনৈতিক দলকে কোন পরামর্শ দেয়ার সুযোগ নেই। সাংবিধানিক, আইন-কানুনের যতটুকু দায়িত্ব আছে তার বাইরে আর কোন চাওয়া নেই।’ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, অনেক সময় অনেকে আচরণবিধি লঙ্ঘণ করে থাকেন জেনে বা না জেনে। অনেক সময় দেখা যায়, রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীর জানার বাইরে অথবা তার সম্মতির বাইরে কোন লোক বা সমর্থক এগুলো করে থাকে। এগুলোর ব্যাপারেও আপনাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে।
খান মো. নুরুল হুদা বলেন, নির্বাচনে প্রার্থীর পোলিং এজেন্টরা গুরুত্বপূর্ণ। তাদের আশ্বস্ত করতে হবে যে, তারা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালনের পর রেজাল্ট সিট নিয়ে নিরাপদে ফিরে যেতে পারবেন। তারা যাতে নিরাপদে কেন্দ্রে আসতে পারেন সে ব্যবস্থা করতে হবে। তবে এজেন্ট দেবেন প্রার্থী। অনেক সময় অনেক দুর্বল প্রার্থী এজেন্ট দিতেও পারেন না। কর্মকর্তাদের কাজ হলো- এজেন্ট দিলে তাদের নিরাপত্তা দেয়া।
কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, প্রথম পর্যায়ে ৮৭ উপজেলায় ১০ মার্চ, দ্বিতীয় পর্যায়ে ১২৯ উপজেলায় ১৮ মার্চ, তৃতীয় পর্যায়ে ২৪ মার্চ ১২৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া চতুর্থ পর্যায়ে ৩১ মার্চ এবং পঞ্চম পর্যায়ে ১৮ জুলাই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

উত্তরণবার্তা/দীন



আসছে শীত, ফিট থাকার কয়েকটি টিপস

  নভেম্বর ১৩, ২০১৯     ৩০

এবারও আমনের বাম্পার ফলন

  নভেম্বর ১৩, ২০১৯     ২৪

পুরনো খবর