আজ দেশে ফিরছেন রাষ্ট্রপতি     ঈদকে সামনে রেখে প্রস্তুত কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুট     মেট্রোরেলে আরামদায়ক যাতায়াতে যানজটের কষ্টটা সহ্য করুণ : প্রধানমন্ত্রী     ভারতে নতুন মন্ত্রিসভা নিয়ে জল্পনা     চালু হলো বিরতিহীন ট্রেন ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’     দ্বিতীয় মেঘনা, গোমতী সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী     বসলো ১৩ তম স্প্যান, দৃশ্যমান পদ্মাসেতুর ১৯৫০ মিটার     নজরুলজয়ন্তী আজ    

দেখে নিন সেরা পাঁচ ফিল্ডার কে

  ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০১৯     ২৩০     ৯:২৩ পূর্বাহ্ন     ক্রীড়া
--

উত্তরণবার্তা ক্রীড়া ডেস্ক : বাজপাখির মত ঝাঁপিয়ে পড়তেন তিনি। তার আশ-পাশ দিয়ে কোনো বল ছুটে যাওয়া কিংবা কোনো ক্যাচ মিস হওয়া যেন অকল্পনীয় ব্যাপার। এমন ফিল্ডার ছিলেন যে, ক্রিকেটে কিংবদন্তি ফিল্ডারে পরিণত হয়েছেন তিনি। এতক্ষণে নিশ্চয় সবাই বুঝে গেছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার কিংবদন্তি ফিল্ডার জন্টি রোডসের কথাই বলা হচ্ছে এখানে।
ব্যাটিং-বোলিংয়ের পাশাপাশি দুরন্ত ফিল্ডিংও যে ম্যাচ জয়ের নির্ণায়ক হতে পারে, বিশ্বাস করতে শিখিয়েছিলেন জন্টি রোডস। ১৯৯২ বিশ্বকাপে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্ট থেকে ছুটে গিয়ে ইনজামাম উল-হককে করা তার রান আউট আজও শিহরণ জাগায় ক্রিকেট অনুরাগীদের মধ্যে। এই বিশ্বসেরা ফিল্ডার জন্টি রোডস বাছাই করে নিলেন আধুনিক যুগে তার পছন্দের সেরা পাঁচজন ফিল্ডারকে।
জন্টি রোডসের চোখে আধুনিক ক্রিকেটের সেরা পাঁচ ফিল্ডারের তালিকায় প্রথম স্থানটা ছিনিয়ে নিলেন ভারতের এক ক্রিকেটার। যিনি এখন আর জাতীয় দলেই সুযোগ পান না। তিনি হলেন সুরেশ রায়না।
জন্টির চোখে বাকি চার ফিল্ডারের মধ্যে রয়েছেন দুই দক্ষিণ আফ্রিকান, এক অস্ট্রেলীয় এবং এক ইংলিশ ফিল্ডার। দক্ষিণ আফ্রিকান কিংবদন্তির বেছে নেওয়া প্রথম পাঁচজন ফিল্ডার যথাক্রমে ভারতের সুরেশ রায়না, দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স, ইংল্যান্ডের পল কলিংউড, দক্ষিণ আফ্রিকার হার্সেল গিবস এবং অস্ট্রেলিয়ার অ্যাড্রু সাইমন্ডস। ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসিকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে পাঁচজন ফিল্ডারকে সেরা হিসেবে বেছে নেওয়ার পিছনে কারণও দেখিয়েছেন রোডস।
অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস প্রসঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকান কিংবদন্তি বলেন, ‘সাইমন্ডসের শক্তি তাকে বিভিন্ন কোন থেকে ক্যাচ তালুবন্দি করার ক্ষেত্রে পারদর্শী করে তুলেছিল।’
টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের বিশ্বজয়ী অধিনায়ক পল কলিংউডকে নিয়ে রোডস বলেন, ‘সে একজন দুর্দান্ত ক্রিকেটার। মাঠে আমার ফিল্ডিংয়ের সঙ্গে ওর ফিল্ডিংশৈলীর অনেক ক্ষেত্রে মিল ছিল।’ উল্লেখ্য, ফিল্ডার হিসেবে রোডস-কলিংউড দু’জনই ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে স্বচ্ছন্দ ছিলেন।
ভারতীয় ফিল্ডার সুরেশ রায়নাকে বাছাই করার কারণ হিসেবে জন্টি জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ সুরেশ রায়নার ফিল্ডিং নিয়ে উৎসাহী ছিলেন তিনি। মূলতঃ তার ‘ইফ ইউ নেভার গো, ইউ উইল নেভার নো’ তত্ত্বে বিশ্বাসী রায়নাকে বেশ কিছু জিনিস বাকিদের থেকে আলাদা করেছে বলে জানান রোডস। তার মতে, ‘যে কোনও পরিস্থিতিতে রায়না ডাইভ দেওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকে। কোনও আবহাওয়াই তাকে ঝাঁপিয়ে পড়া থেকে বিরত রাখতে পারে না।’
মাইকেল স্ল্যাটারের পরিবর্তে হিসেবে পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) মাইক হাতে ধারাভাষ্য দিতে দেখা যাবে জন্টি রোডসকে।
উত্তরণবার্তা/অআ
 



মানুষের সমান বোয়াল মাছ

  মে ১৯, ২০১৯     ৫২৬

মাত্র ৫ দিনে ওজন কমাবে আলু

  মে ১৮, ২০১৯     ৩১৫

পুরনো খবর