বাংলাদেশ-ব্রুনেই ৬ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত     শ্রীলংকায় সিরিজ বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ২৯০, গ্রেফতার ২৪     শ্রীলংকায় বোমা হামলা: শেখ সেলিমের নাতি নিহত     এবাদত-বন্দেগির মধ্য দিয়ে পবিত্র শবেবরাত পালিত     সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন : প্রধানমন্ত্রী     ব্রুনেইতে প্রধানমন্ত্রীকে লাল গালিচা সংবর্ধনা     শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলার ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা ও শোক     পবিত্র শবে বরাত আজ    

গ্যাটকো মামলায় খালেদার পক্ষে চার্জ শুনানি ২৭ ফেব্রুয়ারি

  ফেব্রুয়ারী ১০, ২০১৯     ৩৭     ১১:২২ পূর্বাহ্ন     আইন-আদালত
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ বাকি আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন বিষয়ে শুনানির জন্য আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) পুরান ঢাকার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকা বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন এই দিন ধার্য করেন।

এর আগে দুপুর ১২টা ৪০মিনিটে মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়াকে হুইল চেয়ারে করে কারা কর্তৃপক্ষ আদালতে হাজির করে।

আদালতে শুনানিকালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল বলেন, সকল আসামি পরস্পরের সহযোগিতায় এ দুনীর্তি করেছে। তাই সাক্ষ্য মাধ্যমে সবাইকে শাস্তির আওতায় আনা সম্ভব হবে।

এদিকে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোর পরিচালক শাহজাহান এম হাসিবের আদালতে হাজির বিষয়ে সময় বাড়ানোর আবেদন করেন তার আইনজীবী। তবে আদালতের বিচারক তা নামঞ্জুর করে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

গত ২৪ জানুয়ারি গ্যাটকো মামলার শুনানিতে বসার স্থান নিয়ে আপত্তি জানান বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন তার আইনজীবীরাও। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক বলেন, পরবর্তী তারিখে (বৃহস্পতিবার) তার বসার স্থানটি ঠিক করে দেয়া হবে।

গত ১০ জানুয়ারি এ মামলায় খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন আদালত।

এর আগে ২০১৬ সালে ৫ মার্চ খালেদা জিয়া আত্মসমর্পণ করলে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন। রাজধানীর তেজগাঁও থানায় ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়াসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা করেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

পরে এর তদন্ত করে ২০০৮ সালের ১৩ মে জোট সরকারের প্রভাবশালী সাবেক নয় মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীসহ মোট ২৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেন দুদকের উপ-পরিচালক মো. জহিরুল হুদা।

২৪ আসামির মধ্যে সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া, এম শামছুল ইসলাম, জামায়াতের আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী (ফাঁসি কার্যকর), খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো ও এমকে আনোয়ারসহ ছয়জন মারা গেছেন।

তাই মামলাটিতে বর্তমান আসামির সংখ্যা ১৮ জন। তারা হলেন- আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, সাবেক মন্ত্রী কর্নেল আকবর হোসেনের (প্রয়াত) স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুইছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং এ কে এম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌ সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন।

খালেদা জিয়া দুদকের করা দুই মামলায় ১০ ও ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন। এ দণ্ড নিয়ে গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন তিনি।

উত্তরণবার্তা/এআর


 



সু-সম্পর্ক যেন চাড়া গাছ

  এপ্রিল ২২, ২০১৯

ধোনি কাণ্ডে যা বললেন সৌরভ

  এপ্রিল ১৩, ২০১৯     ৫৩৪

যেসব পানীয় কমাবে ওজন

  এপ্রিল ১৬, ২০১৯     ৫০৫

‘রাফিরে, আমার মা রে...’

  এপ্রিল ১১, ২০১৯     ৪১১

নতুন মনুষ্য প্রজাতির সন্ধান!

  এপ্রিল ১৩, ২০১৯     ৩০৪

পুরনো খবর