আজ - বুধবার, ২৩ মে ২০১৮, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | ঢাকা সময়: ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন
বিএনপিকে চূড়ান্ত ভাবে সন্ত্রাসী সংগন বলেছে কানাডার আদালত     একনেকে ৩৯ হাজার ২৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের অনুমোদন     সোনালী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদে নিয়োগ পরীক্ষা ১ জুন     তাজিন আহমেদ আর নেই     ঈদের আগে-পরে ৪ দিন সিএনজি স্টেশন খোলা রাখার ঘোষণা কাদেরের     তিন দশক পর ইরাকে ফিরছে আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট     ভারতে সম্মানসূচক ‘ডি লিট’ পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা     কক্ষপথে অবস্থান নিয়েছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১    

শহীদ মিনারে প্রথম প্রহরে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন

  মার্চ ০৮, ২০১৮     ১৯৫          সংগঠন
--

‘এখনই সময় এগিয়ে যাবার, নারীর জীবন বদলে দেবার’ স্লোগানে ৮ মার্চের প্রথম প্রহরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০১৮ উদযাপন করা হয়েছে। নারী নির্যাতন জোট ‘আমরাই পারি’ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি। এছাড়া অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামাল প্রমুখ।

প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অর্জন আমরা বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্ব পাচ্ছি। আমাদের স্বীকার করতেই হবে যখন বঙ্গবন্ধুর কন্যা জনগণের সেবার সুযোগ পান তখন নারীর উন্নয়ন ঘটে। ধাপে ধাপে নারীরা প্রতিটি ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি একজন নারী, কিন্তু তার চেয়েও বড় পরিচয় আমি একজন মানুষ। আর মানুষের পরিচয় স্বীকৃতি পাবার জন্যই নারীরা আন্দোলন করছে। যত কথাই বলেন না কেনো, নারীর অর্থনৈতিক মুক্তি, নারীর শিক্ষা যতক্ষণ না আমরা অর্জন করতে পারবো ততক্ষণ পর্যন্ত অনেক লক্ষ্যই আমাদের পূরণ হতে সময় লাগবে।

মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল বলেন, বাংলাদেশে নারীরা অনেক এগিয়ে গেছে। কিন্তু পরিসংখ্যান এসেছে ৯২ ভাগ নারী গণপরিবহণে নির্যাতনের স্বীকার হচ্ছে। এই জায়গা থেকে আমাদের অবশ্যই বেরিয়ে আসতে হবে। রাষ্ট্র শুধু মুখে বললে হবে না আমরা নারীর সমধিকারে বিশ্বাস করি, আমরা তার বাস্তবরূপ দেখতে চাই।



মিথ্যে বললেই ধরে ফেলবে মোবাইল!

  এপ্রিল ২১, ২০১৮     ১০৫৯

পুরাতুন খবর