প্রধানমন্ত্রী ২-৬ জুলাই চীন সফর করবেন     দুর্নীতি, সন্ত্রাস, মাদক, ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে সংবাদ পরিবেশন করুন : প্রতি পূর্তমন্ত্রী     বিচার ব্যবস্থা স্বচ্ছ, গতিশীল ও জনমুখী হয়েছে : আইনমন্ত্রী     রেলওয়ের উন্নয়নে ১০৮৬১৬.৩৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ৮১ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে : রেলপথ মন্ত্রী     বিমসটেককে আরো কার্যকর করতে বদ্ধপরিকর ড. মোমেন     তাঁত শিল্পের উন্নয়নে ১৫৮ কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে : গোলাম দস্তগীর গাজী     বয়স্ক ভাতাভোগীর সংখ্যা ৪০ লাখ: প্রধানমন্ত্রী     মুক্তিযুদ্ধকালে দানবীর রণদা প্রসাদকে হত্যা : রায় কাল    

৬ লাখ টাকা ঘুষসহ কাস্টমস কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

  জানুয়ারী ১১, ২০১৯     ৯০     ১২:০৪ অপরাহ্ণ     আইন-আদালত
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : সমুদ্রগামী জাহাজকে ছাড়পত্র প্রদানে ঘুষ বাণিজ্য ও দুর্নীতির অভিযোগে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের রেভিনিউ অফিসার (প্রশাসন) নাজিমুদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অভিযানে নাজিমুদ্দিনের ব্যবহৃত স্টিলের আলমিরা খুলে নগদ ৬ লাখ টাকা উদ্ধার করার পরপরই দুদক টিম তাকে গ্রেপ্তার করে।

দুদকের অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) অভিযোগ পেয়ে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম-২ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মুহঃ মাহবুবুল আলমের নেতৃত্বে সহকারী পরিচালক জাফর আহমেদ ও মোঃ হুমায়ুন কবীরের সমন্বয়ে ওই অভিযান পরিচালিত হয়।

দুদক জানায়, অভিযানকালে দুদকের টিম চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের রেভিনিউ অফিসার (প্রশাসন) নাজিমুদ্দিন কর্তৃক সমুদ্রগামী জাহাজের ছাড়পত্র প্রদানে হয়রানির সত্যতা ও ঘুষ গ্রহণের প্রমাণ পায়। দুই ঘন্টার এ অভিযান শেষে কাস্টমস অফিসার নাজিমুদ্দিন কর্তৃক ঘুষ গ্রহণের বিষয়টি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হলে তাকে বরখাস্ত করা হয়। এদিকে অভিযানের এক পর্যায়ে নাজিমুদ্দিনের ব্যবহৃত স্টিল আলমিরা খুলে দুদক টিম ৬ লাখ টাকা উদ্ধার করে এবং কাস্টমস কর্তৃপক্ষের উপস্থিতিতে ঘটনাস্থলে তা জব্দ করে। এর পরপরই দুদক টিম উদ্ধারকৃত টাকাসহ তাকে গ্রেপ্তার করে।

অভিযান পরিচালনা প্রসঙ্গে এনফোর্সমেন্ট অভিযানের সমন্বয়কারী দুদকের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, ‘দেশের আমদানী-রপ্তানী বাণিজ্যকে নির্বিঘ্ন রাখতে দুদক এ অভিযান চালিয়েছে। রাজস্ব আদায়ের প্রবেশদ্বারকে অবশ্যই দুর্নীতিমুক্ত রাখতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘শিপিং এজেন্টসহ ব্যবসায়ীরা ঘুষ প্রদানের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিলে এবং ঘুষ প্রদানে বিরত থেকে দুদকে তাৎক্ষণিক অভিযোগ করলে এ ধরণের দুর্নীতি প্রতিরোধ করা সম্ভব। দুর্নীতির প্রমাণ পেলে দুদক অবশ্যই আইনি ব্যবস্থা নেবে। দায়ী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদক অনুসন্ধান শুরু করবে। ভবিষ্যতে কেউ যাতে দুর্নীতি ও হয়রানির শিকার না হয়, কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এ ধরনের অভিযান আরও চালানো হবে।’

উত্তরণবার্তা/এআর

 



সাপ নয় সাপপাখি

  জুন ২৫, ২০১৯     ৪৭৪

গ্রিল স্বাদে মুখরোচক চিকেন

  জুন ১৭, ২০১৯     ৩৬৮

শীর্ষে ‘স্লো মোশন’

  জুন ১৫, ২০১৯     ৩৪৬

পুরনো খবর