টেকসই উন্নয়নে যথাযথ ভূমিকা রাখতে প্রকৌশলীদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির     ১ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার সংশোধিত এডিপি অনুমোদন     ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি বুধবার     ডাকসুর প্রথম কার্যকরী সভা ২৩ মার্চ     মোজাম্বিকে ঘূর্ণিঝড়ে মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়াতে পারে     ভোটের রাজনীতি ধ্বংস করেছিল জিয়া     ওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি হতে পারে দুপুরে     রাঙ্গামাটিতে আওয়ামী লীগের সভাপতিকে গুলি করে হত্যা    

নীলফামারীতে ১০ টাকা কেজি দরে চাল পাচ্ছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৮৬০ পরিবার

  মার্চ ০৬, ২০১৮     ২৯৮     ১১:১৭ অপরাহ্ণ     জাতীয় সংবাদ
--

সরকারের খদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় জেলায় ১০ টাকা কেজি দরে চাল পাচ্ছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৮৬০ পরিবার। ছয় উপজেলায় ওই চাল বিতরণের কার্যক্রম চলছে ২৫৭ জন ডিলারের মাধ্যমে।
জেলা খাদ্য বিভাগ সূত্র জানায়, গত সোমবার থেকে ১০টাকা কেজি দরে চাল বিতরণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সপ্তাহে তিন দিন সোম, মঙ্গল এবং বুধবার চাল বিতরণের কার্যক্রম চলবে। প্রতি কার্ডধারী নিদিষ্ট এলাকার ডিলারের মাধ্যমে ৩০ কেজি করে চাল উত্তোলন করবেন।
কর্মসূচির আওতায় ১ লাখ ৩২ হাজার ৮৬০ পরিবারের মধ্যে রয়েছে জেলা সদরের ১৫টি ইউনিয়নে ৩০ হাজার ৭১৩ জন, ডোমার উপজেলায় ১৮ হাজার ৬৮৫, ডিমলায় ২০ জাহার ৭৩৯, জলঢাকায় ২৫ হাজার ২০৩, কিশোরগঞ্জে ২২ হাজার ২৩৪, সৈয়দপুরে ১৫ হাজার ২৮৬ পরিবার।
চাল বিতরণের ডিলার রয়েছে জেলা সদরে ১৫ ইউনিয়নে ৫৪ জন, ডোমারে ১০ ইউনিয়নে ৩৭ ডিমলায় ১০ ইউনিয়নে ৩১ জন, জলঢাকায় ১১ ইউনিয়নে ৫০ জন, কিশোরগঞ্জে ৯ ইউনিয়নে ৫৩ জন, সৈয়দপুরে ৫ ইউনিয়নে ৩২ জন।
সরকারের স্বল্পমূল্যে চাল বিতরণ কর্মসূচিটি শুরু হওয়ায় স্বস্তি ফিরেছে উপকারভোগী পরিবারের মাঝে। এ বিষয়ে জেলার ডোমার উপজেলার জোড়াবাড়ি ইউনিয়নের মিরজাগঞ্জ গ্রামের উপকারভোগি আবুল কাশেম (৫০) বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হামার গরীব মানষির কাথা (কথা) ভাবিয়া ১০টাকা কেজিতে চাউল দেছে। এইলা সুবিধা পায়া হামেরা খুব সুখোত আছি।’
একই গ্রামের অপর উপকারভোগি সাবুল ইসলাম বলেন,‘সরকার হামার অভাব দূর করিবার জন্যে মেলা কাথা (কথা) ভাবেছে। এই মতন সুবিধা হামারে আর কোন সময় পাই নাই।’
জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কাজী সাইফুদ্দিন অভি বলেন, ‘গত সোমবার থেকে জেলার ছয় উপজেলায় ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে জেলার ২৫৭ জন ডিলারের মাধ্যমে ১ লাখ ৩২ হাজার ৮৬০ উপকারভোগি পরিবার ওই চাল পাবে। কর্মসূচির জেলা ও উপজেলা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সপ্তাহের সোম, মঙ্গল ও বুধবার ওই চাল বিতরণের কার্যক্রম চলবে। এছাড়া জেলায় ১৫ জন ডিলারের মাধ্যমে ৩০ টাকা কেজি দরে খোলা বাজারে চাল বিক্রির কার্যক্রম চলছে।



মজাদার কিমা পরোটা

  মার্চ ১২, ২০১৯     ১১৪

সন্তানই আমার সবকিছু হবে

  মার্চ ১৯, ২০১৯     ১১৩

পুরনো খবর