স্পিকারের সঙ্গে ইউএনডিপি’র প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ     সংসদে আজ ওজন ও পরিমাপ মানদন্ড বিল, ২০১৮ পাস     ৩৫টি ড্রেজার কিনতে ৪,৪৮৯ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন     মিয়ানমারের ৫ জেনারেলের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ অস্ট্রেলিয়ার     ব্যারিস্টার মইনুলের গ্রেফতারে রাজনীতির সম্পর্ক নেই: নাসিম     নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত ২৬ অক্টোবর: সেতুমন্ত্রী     এশিয়ান হাইওয়ে নেটওয়ার্ক জোরদার করার উদ্যোগ     বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে সমর্থন করে যুক্তরাষ্ট্র :মার্কিন উপ-সহকারী মন্ত্রী    

পাবনায় নৌকাডুবি, নিখোঁজদের সন্ধানে অভিযান চলছে

  সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮     ৩২     ১১:১৪ পূর্বাহ্ন     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক: পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুরে পদ্মা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ তিনজনের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান চলছে। তবে নৌকাডুবির ১৯ ঘণ্টা পর্যন্ত নিখোঁজ কারো মরদেহ উদ্ধার করা যায়নি।

পাবনা ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক এ কে এম সাইফুল ইসলাম জানান, পাবনা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ও রাজশাহী থেকে আসা একটি ডুবুরি দলের সদস্যরা শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রথম উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়। তবে এখন পর্যন্ত কারো সন্ধান মেলেনি।

অপরদিকে, নিখোঁজ তিনজনের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। নদীর তীরে বসে আছেন নিখোঁজদের স্বজনরা। উদ্ধার অভিযান ও নিখোঁজদের খবর জানতে ভিড় করছেন এলাকাবাসীও।

নৌকাডুবির খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘটনাস্থলে ছুটে যান পাবনার জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওবাইদুল হক। তারা নিখোঁজদের বিষয়ে ও উদ্ধার অভিযানের খোঁজখবর নেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেন, ‘আমরা নিখোঁজদের উদ্ধারের সবার্ত্মক চেষ্টা করছি। ফায়ার সার্ভিস, মেডিক্যাল টিম এখানে উপস্থিত রয়েছে। রাজশাহী থেকে ডুবুরি দল এসে উদ্ধার কাজে অংশগ্রহণ করেছে। পাবনা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিখোঁজদের পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা দেওয়া হবে।’

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের দীঘি গোহাইলবাড়ী এলাকায় পদ্মা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। এতে শিশুসহ তিনজন নিখোঁজ হয়। নিখোঁজরা হলেন- সদর উপজেলার দীঘি গোহাইলবাড়ী গ্রামের ইমান সরদারের ছেলে আবুল হাসেম (৩০), ডিটুল সরদারের ছেলে বিপ্লব (৭) ও কাশেম সরদারের ছেলে নাইম (৬)।

চরতারাপুর ইউপি চেয়ারম্যান টুটুল খাঁ জানান, একটি মৃত্যুবাষির্কীতে যোগদানের উদ্দেশে ১১ জন যাত্রী দীঘি গোইলবাড়ী থেকে নৌকায় করে অপর পাড়ে ভাদুরডাঙ্গি ঘাটের দিকে যাওয়ার উদ্দেশে পদ্মা নদী পার হচ্ছিল। যাত্রা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রবল স্রোতের টানে নৌকাটি উল্টে যায়। এ সময় আটজন সাঁতরে তীরে উঠলেও ওই তিনজন নিখোঁজ হয়।

উত্তরণবার্তা/এআর


 



নতুন আর্জেন্টিনা পুরনো ব্রাজিল

  সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৮     ৭৮৫৪

যমজ লাল্টু-পল্টুর দাম ২০ লাখ

  আগস্ট ১২, ২০১৮     ৪৫৮২

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের সূচি

  জুন ০৬, ২০১৮     ৪২৯৬

পান খাওয়ার উপকারিতা

  অক্টোবর ১৫, ২০১৮     ২২৭২

পুরনো খবর