কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ     জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ঢাকায় আসছেন     ঈদ শেষে স্বস্তিতে ফিরছেন মানুষ     নতুন সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদ     ঈদযাত্রা এতটা স্বস্তিদায়ক হবে ভাবিনি : সেতুমন্ত্রী     নেই কর্মচাঞ্চল্য, সচিবালয়ে ছুটির আমেজ     জাপানে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ৩     ঈদের ছুটি শেষে ঢাকায় ফিরছেন কর্মজীবী মানুষ    

বিসিএসআইআর মডেল রাস্তা নির্মাণে জাপানের টুইস্টার টেকনোলজি ব্যবহার করবে

  এপ্রিল ২১, ২০১৮     ১৬৫          জাতীয় সংবাদ
--

নিজস্ব প্রতিবেদক,  উত্তরণ বার্তা.কম  : বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ (বিসিএসআইআর) দেশে টেকসই অবকাঠামো নির্মাণ নিশ্চিত করতে জাপানের টুইস্টার প্রযুক্তিতে পরীক্ষামূলকভাবে একটি সড়ক নির্মাণ করতে যাচ্ছে।
বিসিএসআইআর সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম ভুইয়া আজ বলেন, টেকসই সড়ক উন্নয়ন উদ্যোগ হিসেবে ঢাকা মহানগরী অথবা নিকটবর্তী এলাকায় একটি মডেল রাস্তা তৈরি করা হবে।
এই উদ্যোগের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম ভুইয়া বলেন, এই পাইলট প্রকল্পের জন্য অর্থ কারিগরি সহযোগিতা দেবে জাপান ডেভলপমেন্ট কনট্রাকশন (জেডিসি)।
তিনি বলেন, বিসিএসআইআর এখন প্রকল্পের জন্য সুবিধাজনক এলাকা নির্বাচনের কাজ করবে।
পরিষদ আশা করে, বিভিন্ন সরকারি এবং বেসরকারি কোম্পানিগুলো দেশব্যাপী বাঁধ, মেরিন ড্রাইভ, রেলওয়ে এবং বিমান বন্দর রানওয়েসহ সড়ক নির্মাণে এই উদ্যোগ অনুসরণ করবে।
কর্মকর্তা বলেন, পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়নে বিসিএসআইআর এবং জেডিসি কর্পোরেশন গত ২৮ মার্চ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে।
বিসিএসআইআর সচিব মো. খলিলুর রহমান এবং জেডিসি কর্পোরেশনের প্রেসিডেন্ট তাকিও আসাকুরা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এমওইউ স্বাক্ষর করেন। স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বিসিএসআইআর চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে ২০১৭ সালের ২৪ আগস্ট ফারুক আহমেদের নেতৃত্বে ৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল জাপান সফর করেন এবং সেখানে টুইস্টার টেকনোলজির কার্যকারিতা পর্যবেক্ষণ করেন।
টুইস্টার প্রযুক্তি সম্পর্কে প্রকল্প সমন্বয়ক বলেন, শহর ও গ্রামীণ উভয় এলাকায় রাস্তা নির্মাণ, বাঁধ, বন্দর রক্ষা বাঁধ, মেরিন ড্রাইভ, মাটির উন্নয়নের মাধ্যমে রেলওয়ে এবং বিমানবন্দর রানওয়ে নির্মাণে এই পদ্ধতি কার্যকর।
ভুইয়া বলেন, টেকসই উন্নয়নের জন্য এই প্রযুক্তি বালি ও কাঁদাসহ যে কোন ধরনের মাটির রিসাইক্লিং ও শক্তিশালী করার মাধ্যমে মাটির উন্নয়ন ঘটাতে পারে।
বাংলাদেশে বর্তমানে নির্মাণ পদ্ধতিতে সময় ও অর্থ ব্যয় হয়, টুইস্টার পদ্ধতিতে একই রকম হবে তবে এই কাঠামো অন্তত ১০০ বছর টেকসই থাকবে।
এই পদ্ধতি ব্যয় সাশ্রয়ী এবং পরিবেশ বান্ধব উল্লেখ করে বিসিএসআইআর কর্মকর্তা বলেন, পরিবেশের জন্য কোন ঝুঁকি সৃষ্টি না করে এই পদ্ধতি মাটির টেকসই ক্ষমতা বৃদ্ধি করবে।



পুরাতুন খবর