রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর     জাপানে মার্কিন নৌঘাঁটি লকডাউন     স্থানীয় সরকারকে ঢেলে সাজানোর চিন্তা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী     একনেকে ১০ হাজার কোটি টাকার ৮ প্রকল্প অনুমোদন     অধিদপ্তরের সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের কোনো সমস্যা নেই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী     সুফিয়া হায়দার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক     পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে ঢাকায় আনা হয়েছে     ভার্চুয়ালি আপিল বিভাগে নিয়মিত বিচার কার্যক্রম চলবে ১৯ জুলাই থেকে    

জর্জ ফ্লয়েড হত্যা: অভিনব প্রতিবাদ মেসি-রোকুজ্জোর

  জুন ০৩, ২০২০     ৩০৮     ১৬:১৫     ক্রীড়া
--

উত্তরণবার্তা ক্রীড়া ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশি হেফাজতে সাবেক কৃষ্ণাঙ্গ বাস্কেটবল তারকা জর্জ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদ নানাভাবে চলছে সারাবিশ্বে। তাতে অকুণ্ঠ সমর্থন জানাচ্ছেন ক্রীড়াবিদরা। মূলত তিনি অ্যাথলেট হওয়ায় এমনটি দেখা যাচ্ছে।

এবার সেই তালিকায় নাম লেখালেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি এবং তার স্ত্রী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জো। ব্ল্যাকআউট করে নারকীয় এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ জানালেন তারা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে কোনো ছবি পোস্ট করেননি মেসি। সেখানে দেখান শুধু কালো রঙ। সঙ্গে লেখেন– বিএলএম। অর্থাৎ ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার। আরও লেখেন– ব্ল্যাক আউট টুয়েসডে।

মেসির স্ত্রী আন্তোনেল্লাও একই পন্থা অবলম্বন করেন। তার ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্টেও কালো রঙের আভা দেখা যায়। এর ওপর ছিল একটি হৃদয়চিহ্ন।

সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। তাতে দৃশ্যমান হয়, নানা রঙের চারটি হাত একে অন্যকে ধরে আছে। সেটির নিচে লেখা সেই #বিএলএম।

গেল ২৫ মে মিনোপোলিসে ফ্লয়েডের গলা টানা প্রায় ৮ মিনিট হাঁটু দিয়ে চেপে রাখেন এক শেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা। ফলে শ্বাসরোধ হয়ে আফ্রিকান-আমেরিকান বাস্কেটবল তারকার মৃত্যু হয়।

সঙ্গে সঙ্গে তা ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যায়। পরিপ্রেক্ষিতে এ ন্যক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্র। অগ্নিস্ফূলিঙ্গের মতো ফুঁসে ওঠেন কালো বর্ণের মানুষগুলো। একাধিক দোকানপাট, স্থাপনায় লুটপাট, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন তারা।

এর রেশ আছড়ে পড়ছে গোটা বিশ্বে। রাজনীতি ও বিনোদন জগতের মানুষও তাতে সমর্থন দিচ্ছেন। এ মুহূর্তে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে নিজেদের বেশ কয়েকটি শহরে কারফিউ জারি এবং সেনা মোতায়েন করেছে মার্কিন প্রশাসন।

তবু আন্দোলন স্তিমিত করা যাচ্ছে না। ফ্লয়েড খুনের ন্যায়বিচারের দাবিতে সোচ্চার সবাই। টানা আট দিন ধরে সেই মুলুকে বিক্ষোভ, মিছিল ও সমাবেশ চলছে।

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস

উত্তরণবার্তা/সাব্বির



পুরনো খবর