বিমান যাত্রীদের সুরক্ষায় সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে     বছর শেষে বাজারে আসছে চীনের করোনা টিকা     স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংশোধিত ১২ নির্দেশনা     করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে ৯৯ শতাংশ আত্মবিশ্বাসী সিনোভ্যাক     সোমবার থেকে অভ্যন্তরীণ ৩ রুটে চলবে বিমান, ভাড়া বাড়ছে না     দু’দফা ক্ষমতায় থেকেও বিএনপি জিয়া হত্যার বিচার না করা রহস্যজনক : তথ্যমন্ত্রী     এসএসসির ফল প্রকাশ কাল     গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মানা না হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে : ওবায়দুল কাদের    

রাজশাহীতে ঈদের বেচাকেনা করতে গেলেই জরিমানা

  মে ২২, ২০২০     ২৭     ২২:২২     আইন-আদালত
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : রাজশাহীতে ঈদের বেচাকেনা করতে মার্কেটে গেলেই গুণতে হচ্ছে জরিমানা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নগরীর সাহেববাজার এলাকায় এমন অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এর আগে বুধবার খুব প্রয়োজন ছাড়া রাজশাহী শহরে ঘোরাফেরা করলেই জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মাস্ক না থাকার কারণে জরিমানা করা হয়। এর আগের দিন মঙ্গলবার অপ্রয়োজনে রাস্তায় বের হলে রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রেখে শাস্তি দেয়া হয়। তবে বৃহস্পতিবার থেকে আরও কঠোর হয়েছে প্রশাসন। পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর সদস্যরা প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যেই কঠোরভাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বন্ধ মার্কেট-দোকানপাট ১০ মে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলার সিদ্ধান্ত দেয় সরকার। কিন্তু সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই বেচাকেনা করছিলেন রাজশাহীর ব্যবসায়ী ও গ্রাহকেরা। এ অবস্থায় গত সোমবার বিকালে জেলা আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত কোর কমিটির সভায় ওষুধ, জরুরি সেবা, খাবার ও কাঁচাবাজার ছাড়া রাজশাহীর সব দোকানপাট বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়। এরপর থেকে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন।

নগরীর আরডিএ মার্কেটে দোকান খোলার অপরাধে বুধবার এক ব্যবসায়ীকে ছয় হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মঙ্গলবার একই মার্কেটের আরেক ব্যবসায়ীকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তারপরও বৃহস্পতিবার একই মার্কেটের তিনজন ব্যবসায়ী দোকান খোলেন। তাদের প্রত্যেককে দুই হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। আর কেউ দোকান খুললে তাকেও জরিমানা করা হবে বলে সতর্ক করেছে প্রশাসন।

এদিকে বৃহস্পতিবার যারা আরডিএ মার্কেটে ঈদের কেনাকাটা করতে গিয়েছিলেন তাদেরও এক হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জরিমানার টাকা না দিলে এক ঘণ্টা মার্কেটের সামনের রাস্তায় দাড় করিয়ে রাখা হয়। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত আমান আজিজ এই অভিযান পরিচালনা করেন।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক হামিদুল হক সাংবাদিকদের বলেন, জনস্বার্থেই রাজশাহীর মার্কেট ও দোকানপাট বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়েছে। শুধু রাজশাহী মহানগর নয়, সকল উপজেলার জন্যও এই সিদ্ধান্ত প্রযোজ্য। এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আরও কঠোর হবেন।

উত্তরণবার্তা/এআর

 



পুরনো খবর