উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক :আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের পক্ষ থেকে ঈদ উপহার পেয়েছেন চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষু ও সনাতনী সম্প্রদায়ের পুরোহিতরা।
শুক্রবার বিকেলে রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে তথ্যমন্ত্রীর পারিবারিক প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে এসব ঈদ উপহার সামগ্রী বৌদ্ধ ভিক্ষু ও পুরোহিতদের হাতে তুলে দেয়া হয়।
তথ্যমন্ত্রীর পক্ষে উপহার সামগ্রীগুলো বিতরণ করেন রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ও এনএনকে ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি জসিম উদ্দিন তালুকদার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এমরুল করিম রাশেদ, পৌর কাউন্সিলর মোহাম্মদ সেলিম, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি পলাশী মুৎসুদ্দী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন রিয়াজ ও ব্যবসায়ী নেতা আমির হামজা।
এসময় তথ্যমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভিক্ষু সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুমঙ্গল মহাথের ও সৈয়দ বাড়ি জয়কালী মন্দিরের পুরোহিত রূপন চক্রবর্তী।
রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার বলেন, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই রাঙ্গুনিয়ায় কর্মহীন ও দরিদ্রের মাঝে এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। দুই দফায় এপর্যন্ত ১৫ হাজারেরও বেশি মানুষকে খাদ্য সহায়তার আওতায় আনা হয়েছে।
তিনি বলেন, তথ্যমন্ত্রীর সংসদীয় আসন রাঙ্গুনিয়া ও বোয়ালখালীর আংশিক এলাকার ৭শতাধিক মসজিদের দেড় হাজার ইমাম-মুয়াজ্জিনকে দেয়া হয়েছে ঈদ উপহার সামগ্রী। সর্বশেষ আজ এখানকার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষু ও সনাতন সম্প্রদায়ের পুরোহীতদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শেষ না হওয়া পর্যন্ত তথ্যমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে জানান এনএনকে ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তারা।

উত্তরণবার্তা/দীন

 
"/>
আমরা ইতিহাসের অভাবনীয় দুঃসময় অতিক্রম করছি : প্রধানমন্ত্রী     পাবনা-৪ উপনির্বাচনে জয় পেলেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী নুরুজ্জামান বিশ্বাস     রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান মিয়ানমারকেই করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী     ডোপ টেস্টে পজিটিভ ২৬পুলিশ সদস্যকে চাকরিচ্যুত করার প্রক্রিয়া শুরু: ডিএমপি কমিশনার     প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে আইন ও ন্যায়ের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী     মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে     শেখ হাসিনার ৭৪তম শুভ জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কর্মসূচি     দেশে কোভিড-১৯ এ মৃত্যু আরও ৩৬ জন    

রাঙ্গুনিয়ায় তথ্যমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেলেন বৌদ্ধ ভিক্ষু ও পুরোহিতরা

  মে ২২, ২০২০     ১৩৭     ১৯:৫৭     সংগঠন
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক :আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের পক্ষ থেকে ঈদ উপহার পেয়েছেন চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষু ও সনাতনী সম্প্রদায়ের পুরোহিতরা।
শুক্রবার বিকেলে রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে তথ্যমন্ত্রীর পারিবারিক প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে এসব ঈদ উপহার সামগ্রী বৌদ্ধ ভিক্ষু ও পুরোহিতদের হাতে তুলে দেয়া হয়।
তথ্যমন্ত্রীর পক্ষে উপহার সামগ্রীগুলো বিতরণ করেন রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ও এনএনকে ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি জসিম উদ্দিন তালুকদার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এমরুল করিম রাশেদ, পৌর কাউন্সিলর মোহাম্মদ সেলিম, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি পলাশী মুৎসুদ্দী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন রিয়াজ ও ব্যবসায়ী নেতা আমির হামজা।
এসময় তথ্যমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভিক্ষু সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুমঙ্গল মহাথের ও সৈয়দ বাড়ি জয়কালী মন্দিরের পুরোহিত রূপন চক্রবর্তী।
রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার বলেন, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই রাঙ্গুনিয়ায় কর্মহীন ও দরিদ্রের মাঝে এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। দুই দফায় এপর্যন্ত ১৫ হাজারেরও বেশি মানুষকে খাদ্য সহায়তার আওতায় আনা হয়েছে।
তিনি বলেন, তথ্যমন্ত্রীর সংসদীয় আসন রাঙ্গুনিয়া ও বোয়ালখালীর আংশিক এলাকার ৭শতাধিক মসজিদের দেড় হাজার ইমাম-মুয়াজ্জিনকে দেয়া হয়েছে ঈদ উপহার সামগ্রী। সর্বশেষ আজ এখানকার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষু ও সনাতন সম্প্রদায়ের পুরোহীতদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শেষ না হওয়া পর্যন্ত তথ্যমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে জানান এনএনকে ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তারা।

উত্তরণবার্তা/দীন

 



এবার চাঁদে যাচ্ছেন এক নারী

  সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০

অপুর জন্য অপেক্ষা

  সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০

পুরনো খবর