বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি: প্রধানমন্ত্রী     বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন     দাপুটে জয়ে ওয়ানডে সিরিজ বাংলাদেশের     আমজাদ হোসেনের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ     তুরস্কে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ৯, আহত ৯০     মানবতাবিরোধীদের যারা রক্ষার চেষ্টা করছে, তাদেরও বিচার হবে     বোলিংয়ে বাংলাদেশ, একাদশে মিথুন-সাইফউদ্দিন     সমুদ্রবন্দরে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত    

ছাত্রলীগের ২৯তম সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ৫ এপ্রিল

  এপ্রিল ০৪, ২০১৮     ২৫১     ১১:১৭ পূর্বাহ্ন     রাজনীতি
-- ছাত্রলীগের ২৯তম সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ৫ এপ্রিল



বহু নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে ছাত্রলীগ তাদের ২৯তম সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করতে যাচ্ছে। এ লক্ষে ছাত্রলীগ আগামী ৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ছাত্রলীগের প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করছে। সংগঠনটির দপ্তর সম্পদক দেলোয়ার শাহজাদা সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। এদিকে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার কথা শুনে সংগঠনটির সর্বস্তরের নেতাকর্মী উজ্জীবিত।

এর আগে ৩১ মার্চ ও ১ এপ্রিল ২৯তম সম্মেলনের তারিখ নির্ধারিত থাকলেও গত ৯ মার্চ ছাত্রলীগ সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক হঠাৎ ঘোষণা দেন যে, ওই তারিখে সম্মেলন হবে না। এমন খবরে সংগঠনের নেতাকর্মীদের মনে সম্মেলন নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা সম্মেলন হবে কি হবে না সেটা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার দাবি জানান। কিন্তু ছাত্রলীগ সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সম্মেলনের তারিখ পরে জানানো হবে বলে গণমাধ্যমকর্মীদের জানান।

পরে ৩১ মার্চ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় মে মাসে ছাত্রলীগের সম্মেলনের বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয় বলে জানা যায়। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ বৈঠক শুরু হয়। মে মাসের প্রথম অথবা দ্বিতীয় সপ্তাহে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা আসতে পারে।

এদিকে, আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মেলনের তারিখ প্রকাশের ঘোষণায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। তাদের মধ্যে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। সবার আলোচনার বিষয়বস্তু নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্মেলনে পদপ্রত্যাশীদের বয়স কত হবে, কারা আসবেন নেতৃত্বে ইত্যাদি।

৩১ মার্চ ও ১ এপ্রিল সম্মেলন হবে এমন ঘোষণার পর থেকেই মধুর ক্যান্টিনে নেতাকর্মীদের আনাগোনা বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু মাঝখানে সম্মেলন নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হওয়ায় সেই আনাগোনায় কিছুটা ছেদ পড়ে। সম্মেলন হবে এমন খবরে নেতাকর্মীরা আবার চাঙা হয়ে উঠেছে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রলীগের সরব উপস্থিতিতে চলছে সরগরম আলোচনা।

সম্মেলনের বিষয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আরেফিন সিদ্দিক সুজন বলেন, আদর্শিক নেত্রী শেখ হাসিনা সম্মেলনের ঘোষণা দিয়ে নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করেছেন। আমরা এটাকে স্বাগত জানাই। নির্মোহভাবে আমরা এই সম্মেলনকে সফল করব।

ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স বলেন, ছাত্রলীগের ২৯ তম সম্মেলনের সার্বিক সফলতা কামনা করি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আদেশ বাস্তবায়নে ছাত্রলীগের প্রতিটি পর্যায়ের নেতাকর্মী যেন সচেতন, প্রজ্ঞাবান হয়ে সম্মেলনকে সফল করে।

২০১৫ সালের ২৬ ও ২৭ জুলাই ছাত্রলীগের ২৮তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ওই সম্মেলনে সাইফুর রহমানকে সভাপতি ও এস এম জাকির হোসাইনকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়।



নতুন আর্জেন্টিনা পুরনো ব্রাজিল

  সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৮     ৭৯৫০

যমজ লাল্টু-পল্টুর দাম ২০ লাখ

  আগস্ট ১২, ২০১৮     ৪৬৭৭

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের সূচি

  জুন ০৬, ২০১৮     ৪৪৩৬

পান খাওয়ার উপকারিতা

  অক্টোবর ১৫, ২০১৮     ২৪১০

পুরনো খবর