জুন থেকে কলম্বিয়ায় করোনার বিধিনিষেধ শিথিল     দেশে করোনা চিকিৎসায় প্রয়োগ হচ্ছে রেমডেসিভির     করোনা চিকিৎসায় এবার গাউচার রোগের ওষুধ     লকডাউন শিথিল করা মানে এই নয়, অপ্রয়োজনে ঘোরাঘুরি করবো : তথ্যমন্ত্রী     দুর্যোগে নিরাপদ দূরত্বে অবস্থানই বিএনপির রাজনীতি: ওবায়দুল কাদের     বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩ লাখ ৫৩ হাজার     ব্রিটেনে প্রথমবারের মতো ‘বিচারক’ হলেন হিজাবধারী মুসলিম নারী     রাজনৈতিক জীবনের ৫০ বছর: রাজাপাকসেকে অভিনন্দন প্রধানমন্ত্রীর    

কেরানীগঞ্জ কারাগারে প্রথম ফাঁসি হবে মাজেদের

  এপ্রিল ১০, ২০২০     ৩৪৮     ১০:২৯     আইন-আদালত
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : প্রস্তুত কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ফাঁসির মঞ্চ।  প্রস্তুত রয়েছে জল্লাদের একটি দল।  যেকোনও সময় কার্যকর হতে পারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) মাজেদের ফাঁসি।

কারাগারের একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, আগামী শনিবার অথবা রোববার ফাঁসি কার্যকরের সম্ভাবনা বেশি।  বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল)  রাষ্ট্রপতির ক্ষমা প্রার্থনার আবেদনটি কারা কর্তৃপক্ষের কাছে এসে পৌঁছায়।  তবে  এদিন রাতে শবেবরাত এবং শুক্রবার কোনও ফাঁসি দেয়ার নিয়ম না থাকায় শনিবার কিংবা রোববার মাজেদের ফাঁসি হতে পারে।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল ইসলামের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

সূত্র জানায়, কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে এখন পর্যন্ত কোনও ফাঁসি কার্যকর হয়নি।  তবে মঞ্চটি সবসময় প্রস্তুত থাকে।  মাজেদই একমাত্র আসামি, তার এই কারাগারে ফাঁসি কার্যকর হবে।

এর আগে মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকোচ করে দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।  বুধবার বিকেলে মাজেদ রাষ্ট্রপতির কাছে এ আবেদন করেন। কারা কর্তৃপক্ষ আবেদনটি বিকেলেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দেয়।  সেখান থেকে বঙ্গভবনে পৌঁছানো হয়। প্রাণভিক্ষার আবেদনটি বঙ্গভবনে পৌঁছার পরপরই তা খারিজ করে দেন রাষ্ট্রপতি। এটি প্রত্যাখ্যাত হওয়ায় কারা কর্তৃপক্ষের সামনে দণ্ড কার্যকরে বাধা থাকছে না।

প্র্রসঙ্গত, বুধবার ঢাকা জেলা ও দায়রা জজ এম হেলাল উদ্দিন চৌধুরী মাজেদের মৃত্যু পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।  সোমবার রাত ৩টা ৪৫ মিনিটের দিকে গাবতলী বাসস্ট্যান্ডের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।  বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ৪৪ বছর ৭ মাস ২১ দিন পর গ্রেপ্তার হন তিনি।

উত্তরণবার্তা/এআর



পুরনো খবর