ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন বঙ্গবন্ধুর বিশ্বস্ত সহচর : প্রধানমন্ত্রী     কেরালায় ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনায় পাইলটসহ নিহত ১৫     বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দ্রুত দেশে এনে রায় কার্যকর করতে সরকার সচেষ্ট     ১৯১ যাত্রী নিয়ে রানওয়েতে দুই টুকরো এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্লাইট     বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের ওয়েবিনার আগামীকাল     মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গণির মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক     দেশে উন্নয়নের নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হয়েছে : কৃষিমন্ত্রী     বন্যার্তদের মাঝে ১১ হাজার ৬ টন চাল বিতরণ করেছে সরকার    

শাহাদাত-কাণ্ডে শহীদ-সানির শাস্তি

  ডিসেম্বর ০২, ২০১৯     ১৪৯     ২০:০২     বিনোদন
--

উত্তরণবার্তা ক্রীড়া ডেস্ক : জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) সতীর্থ ক্রিকেটার আরাফাত সানি জুনিয়রকে মারধরের ঘটনায় নিষিদ্ধ হয়েছেন পেসার শাহাদাত হোসেন। সেই ঘটনায় ইন্ধন ছিল মোহাম্মদ শহীদের। এই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটার আরাফাত সানিকেও দোষী পাওয়া গেছে। তাই শাস্তির মুখোমুখি শহীদ ও সানি।

সতীর্থকে প্রহার করায় ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন শাহাদাত হোসেন। একই ঘটনায় নিজেদের ভূমিকার জন্য ১ বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে মোহাম্মদ শহীদ ও আরাফাত সানি জুনিয়রকে। শাহাদাত খেলতে না পারলেও বাকি দুইজনের খেলা চালিয়ে যেতে অসুবিধা নেই। তবে আগামী ১ বছরের মধ্যে ফের কোনো ধরনের বিতর্কিত কমকাণ্ডে লিপ্ত হলে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। আগামী দিনগুলোতে মাঠের পাশাপাশি মাঠের বাইরেও তাদের আচরণ পর্যবেক্ষণ করবে বিসিবি।

মোহাম্মদ শহীদ ও আরাফাত সানি জুনিয়রের শাস্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টুর্নামেন্টের টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান মিনহাজুল আবেদীন নান্নু, ‘মাঠে তাদের এমন আচরণের কারণে স্থগিত নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। এখন থেকেই তাদের আচরণ পর্যবেক্ষণ করা হবে। সামনে কোনও ধরনের বিতর্কিত কিছু পেলে সঙ্গে সঙ্গে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। আশা করি, তারা নিজেদের শুধরে নিতে পারবে।’

গত ১৭ নভেম্বর খুলনায় জাতীয় লিগের ম্যাচে কথা কাটাকাটির জের ধরে অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার সানিকে চড় মারেন শাহাদাত। আচরণবিধির ৪ ধারা ভঙ্গ করার দায়ে ম্যাচ রেফারি শেষ দুই দিনের জন্য বহিষ্কার করেন এই পেসারকে। পরে টেকনিক্যাল কমিটি ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে শাহাদাতকে।

ম্যাচ রেফারি প্রতিবেদন জমা দেওয়ার পর জানা যায়, ঘটনার সূত্রপাত হয় শহীদের হাত ধরে। আরাফাত হয়তো বেঁচে যেতেন। কিন্তু শুনানিতে ডাকার পর তারও দোষ ধরা পড়ে টেকনিক্যাল কমিটির কাছে।
উত্তরণবার্তা/অআ



পুরনো খবর