জিসিসি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ উপকরণ বিতরণ শুরু     সিইসির সঙ্গে বৈঠকে আওয়ামী লীগ     মন্ত্রিসভায় উঠছে আজ, দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে হচ্ছে উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ     টাঙ্গাইলে ট্রাক উল্টে খাদে পড়ে নিহত ৪     প্রস্তুত গাজীপুর রাত পোহালেই ভোট     ইসি গাজীপুর সিটিতে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন উপহার দেবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী     আঞ্চলিক যোগাযোগ জোরদার করার ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ     বেকার সমস্যা নিরসনে ৯ বছরে সরকারি চাকরিতে ৬,১১,১৮৪টি পদ সৃষ্টি করা হয়েছে : সৈয়দ আশরাফ    

ফারজানার ব্যাটে ভারতকে হারালো বাংলাদেশ

  জুন ০৬, ২০১৮     ৪৮     ৩:৫১ অপরাহ্ণ     ক্রীড়া
--

ক্রীড়া ডেস্কঃ প্রথম ম্যাচে হারের পর দারুণ ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ।ছেলেরা হতাশ করলেও হতাশ করেননি মেয়েরা। ঈদের আগে ক্রিকেট ভক্তদের উৎসবের উপলক্ষ এনে দিয়েছেন রুমানা-সালমারা। ফারজানা হকের অনবদ্য ইনিংসের সুবাদে শক্তিশালী ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালের পথটা অনেকটা সহজ করে রাখলো বাংলাদেশ।

এই মুহূর্তে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের পয়েন্ট সমান চার করে। বাংলাদেশ শেষ দুটি ম্যাচ খেলবে অপেক্ষাকৃত দুর্বল প্রতিপক্ষ মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ডের বিপক্ষে। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে সহজ সুযোগ ফাইনালে যাওয়ার!

বুধবার মালয়শিয়াতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে গ্রুপ পর্বের ম্যাচে টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের তৃতীয় দল ভারতের মুখোমুখি হয় দশম স্থানে থাকা বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করা ভারত বাংলাদেশেকে ১৪২ রানের লক্ষ্য বেঁধে দেয়। ফারজানা হক ও রুমানা আহমেদের বড় জুটিতে ২ বল বাকি থাকতে সাত উইকেটে সেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে বাংলাদেশ।

১৪২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক ছিল সালমারা। ওপেনিং জুটিতে শামিমা সুলতানা ও আয়েশা রহমান ২৯ রানের জুটি গড়েন। এই ‍জুটি ভেঙে যাওয়ার পর শামিমা সুলতানা ও ফারজানা হক মিলে স্কোর বোর্ডে দ্রুততার সঙ্গে আরও কিছু রান যোগ করেন। শামিমা ২৩ বলে সাত চারে ৩৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন। তার বিদায়ের পর অবশ্য নিগার বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি।

এরপরই শুরু হয় ফারজানা হকের দায়িত্বশীল ইনিংস। তাকে সঙ্গ দেন ওয়ানডে অধিনায়ক রুমানা আহমেদ। চতুর্থ উইকেটে তাদের ব্যাট থেকে আসে ৯৩ রান। ফারজানা এদিন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন। ৪৬ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় তিনি অপরাজিত ৫২ রানের ইনিংসটি সাজিয়েছেন। এছাড়া রুমানা ৩৪ বলে ৬ চারে ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন।

ভারতীয় বোলারদের মাঝে পূজা, রাজেশ্বরী ও পুনম যাদব প্রত্যেকে একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

এর আগে টস জিতে আগে ব্যাট করে ভারত নির্ধারিত ২০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান সংগ্রহ করে। অধিনায়ক হারমানপ্রিত করের ৪২ ও টি-টোয়েন্টি অলরাউন্ডারের তালিকায় শীর্ষ চারে থাকা দিপ্তি শর্মার ৩২ রানের ওপর ভর করে লড়াই করার পুঁজি পায় টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের চতুর্থ স্থানে থাকা ভারত।

ভারতের ইনিংসের শুরুতে আঘাত হেনেছিলেন সালমা খাতুন। আর তাতেই ওপেনার স্মৃতি মন্ধানা ব্যক্তিগত দুই রানে সাজঘরে ফেরেন। এরপর মিথালি রানআউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরলে বাংলাদেশ ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয়।
পূজা ও হারমানপ্রিতের ৪৪ রানের জুটিতে প্রাথমিক বিপর্যয় সামলে ওঠে ভারত। পূজা ২০ রান করে জাহানারার সরাসরি থ্রোতে রান আউট হন। এরপর দিপ্তিকে সঙ্গে নিয়ে আরও ৫০ রানের জুটি গড়ে রুমানা আহমেদের শিকারে পরিণত হন হারমানপ্রিত। যাওয়ার আগে ৩৭ বলে ৬ চারে ৪২ রানের ইনিংস খেলেছেন।

সঙ্গীকে হারিয়ে দলীয় স্কোর বোর্ডে আরও এক রান যোগ হতেই দীপ্তি সাজঘরে ফেরেন। ২৮ বলে ৫টি চারে এই অলরাউন্ডার ৩২ রানের ইনিংসটি সাজিয়েছেন।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল বোলার ওয়ানডে অধিনায়ক রুমানা আহমেদ। তিনি ৪ ওভারে ২১ রান খরচায় তিনটি উইকেট নেন। এছাড়া অধিনায়ক সালমা খাতুন নেন একটি উইকেট।

(উত্তরণ/১৫৫০/আইস)



পুরনো খবর