শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয় লেখাপড়ার জন্য লাশ হওয়ার জন্য নয়: রাষ্ট্রপতি     সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন     এনআরসি নিয়ে বাংলাদেশের দুশ্চিন্তার কিছু নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী     বঙ্গবন্ধু খুনের দায়ে জিয়ার ফাঁসি হতো     ফাইভ-জি: ডিজিটাল শিল্পবিপ্লবের মহাসড়ক     হবিগঞ্জে আমন ধান সংগ্রহে লটারি     মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিকভাবে বয়টকের ডাক     মোস্তাক-জিয়ার মরণোত্তর বিচার করা হবে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী    

সকালে ঘুম থেকে উঠে পানি পানে ৬ উপকার

  নভেম্বর ১২, ২০১৯     ২৯৭     ১১:৪৯     বিনোদন
--

উত্তরণবার্তা লাইফস্টাইল ডেস্ক : সকালে ঘুম থেকে উঠেই এক গ্লাস কুসুম গরম পানি খাওয়া শরীরের জন্য খুবই উপকার। পেট পরিষ্কার, শরীরে পানির ঘাটতি পূরণ, খাদ্যনালী ও পাকস্থলী ভালো থাকে। এছাড়া ত্বক ভালো রাখে।

ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস কুসুম গরম পানি খাওয়া নিয়ে বিভিন্ন মতবাদ রয়েছে। আসলে তা কতটা সত্যি। আমাদের শরীরের ৭০ শতাংশ পানি। সুস্থ থাকলে একজন মানুষের পানি পানের বিকল্প নেই। তবে এখন প্রশ্ন হলো সুস্থ থাকতে প্রতিদিন কত লিটার পানি খাবেন?

সুস্থ থাকার জন্য একজন মানুষের প্রতিদিন অন্তত দুই লিটার পানি খাওয়ার প্রয়োজন বলে মনে করেন বেশির ভাগ চিকিৎসক।

১. খাবার খাওয়ার ৩০ মিনিট আগে যদি এক গ্লাস কুসুম গরম পানি খাওয়া যায় তবে অ্যাসিডিটি, বদহজম, অম্বলের মতো একাধিক সমস্যা থেকে সহজেই মুক্তি মিলবে।

২. আপনি কি দীর্ঘদিন ধরে কোষ্ঠকাঠিন্যে ভুগছেন? কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা হলে সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে এক গ্লাস কুসুম গরম পানি খেলে পেট সহজেই পরিষ্কার হয়ে যাবে। এছাড়া কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে।

৩. শরীরের অতিরিক্ত চর্বি কমাতে কুসুম গরম পানির জুড়ি নেই। গরম পানি খেলে শরীরের মেটাবলিক রেট বাড়ে এবং সহজেই অনেকটা ক্যালোরি পোড়ে। ৪. গরম পানি খাওয়ার চাহিদা কমিয়ে ওজন কমাতেও সাহায্য করে। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে হালকা গরম পানির সঙ্গে পাতি লেবুর রস মিশিয়ে খেতে পারলে মেদ ঝরবে দ্রুত।

৫. প্রতিদিন সকালে খালি পেটে গরম পানি খেলে শরীরের টক্সিক উপাদানগুলি সহজেই বাইরে বেরিয়ে যাবে ও শরীরের তাপমাত্রা বাড়বে। আর শরীরের তাপমাত্রা বাড়লে শিরা, ধমনীতে রক্তচলাচলের গতিও স্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পায়।

৬. দীর্ঘদিন ধরে যারা বাতের ব্যথায় ভুগছেন তারা খেতে পারেন গরম পানি। গরম পানির সঙ্গে শরীরে জমে থাকা অপ্রয়োজনীয় উপাদান ঘামের সঙ্গে বাইরে বেরিয়ে যাবে। ফলে ব্যথা বোধও ক্রমশ কমে আসবে।

সূত্র: জি নিউজ

উত্তরণবার্তা/এআর



পুরনো খবর