বাড়ি বাড়ি প্রশ্নপত্র পাঠিয়ে প্রাথমিকের পরীক্ষার পরিকল্পনা     ‘বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করেই ছুটি না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে’     করোনার সংক্রমণ বাড়ায় দক্ষিণ কোরিয়ায় আবারও কড়াকড়ি     ডাকঘর সঞ্চয়ে ২০ লাখ টাকার বেশি রাখা যাবে না     শর্তসাপেক্ষে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন অফিস ও গণপরিবহন চালু     এ পর্যন্ত ৬ কোটি মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দিয়েছে সরকার     ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন     নগদ অর্থ সহায়তা কার্যক্রমে অনিয়মের ঘটনায় আরো ২ ইউপি চেয়ারম্যান ও ৩ সদস্য বরখাস্ত    

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় সরকার প্রস্তুত

  নভেম্বর ০৯, ২০১৯     ৬১     ০১:৪২     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : খুলনা ও বরিশালের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল।  এসব এলাকা থেকে এখনও ৬৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড়টি।  শনিবার সন্ধ্যা থেকে মধ্য রাতে যেকোনো সময় আঘাত হানতে পারে বুলবুল।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড. মো. এনামুর রহমান শুক্রবার বিকেলে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় সরকারের প্রস্তুতি জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বুলবুল মোকাবিলায় সরকার সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে। এজন্য মন্ত্রণালয় থেকে গঠন করা হয়েছে মনিটরিং সেল। এই সেল থেকে ঘূর্ণিঝড় বিষয়ে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হচ্ছে।  জেলা পর্যায়েও মনিটরিং করা হচ্ছে।  ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলা যখন যা দরকার তাই ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।  তাছাড়া ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় মন্ত্রণালয়সহ এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। জেলা-উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় সক্রিয় থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন,  খুলনা ও বরিশালের সাতটি জেলাকে ঘূর্ণিঝড়ে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।  খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, বরিশাল, বরগুনা ও পিরোজপুরের কিছু কিছু এলাকায় ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে পারে।

‘ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এখন ৭ নম্বর সংকেত এ আছে।    আমরা আশা করছি শনিবার সকাল ১১টা থেকে দুই বিভাগের সাত জেলার মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নিতে পারব’,- যোগ করেন প্রতিমন্ত্রী।

এনামুর রহমান বলেন, এরই মধ্যে সাইক্লোন সেন্টারসহ উপকূলের আশ্রয় কেন্দ্রগুলো প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।  প্রতিটি সাইক্লোন সেন্টারে দুই হাজার প্যাকেট করে শুকনো খাবার ও নগদ পাঁচ লাখ করে টাকা পাঠানো হয়েছে।

এ সময় ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামালসহ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।  এর আগে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় ‘আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমানের সভাপতিত্বে বৈঠকে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় করণীয় ঠিক করা হয়।  সার্বিক প্রস্তুতির বিষয়েও আলোচনা শেষে সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠকে ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামালসহ আবহাওয়া বিভাগের কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে শনিবার বেলা ১১টায় সার্বিক আবারো সংবাদ সম্মেলনে কথা বলবেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড. মো. এনামুর রহমান।
 
উত্তরণবার্তা/এআর



পুরনো খবর