এবারও জানুয়ারিতে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ!     দীর্ঘদিন পর খুলতে যাচ্ছে আমিরাতের শ্রমবাজার     চার বছরে দুর্নীতির ২০ কোটি টাকা জব্দ     শুদ্ধি অভিযান সারা দেশে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে : আইজিপি     শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তাক লাগানো উন্নয়ন চলছে : এলজিআরডি মন্ত্রী     দেশের সব হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টা ডেলিভারি সুবিধা দেয়া হবে     হলি আর্টিজান জঙ্গি হামলার রায় ২৭ নভেম্বর     শ্রীলঙ্কার নতুন প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে    

মৌলবাদ ঠেকাতে সংস্কৃতির আলো জ্বালানোর আহ্বান

  নভেম্বর ০৩, ২০১৯     ২০     ১৪:২৯     আরও
--

উত্তরণবার্তা প্রতিবেদক : হাজার বছরের ঐতিহ্যে বাংলার নিজস্ব নাট্যধারাকে বিশ্বে তুলে ধরার প্রত্যয়ে রাজধানীতে শুরু হয়েছে তিন দিনের গ্রাম থিয়েটার সম্মেলন ও সেলিম আল দীন উৎসব। বিশ্ব থিয়েটার আন্দোলনের ধারায় বাংলার গ্রাম থিয়েটার আন্দোলন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। সে ধারাবাহিকতায় ‘হাতের মুঠোয় হাজার বছর আমরা চলেছি সামনে’ স্লোগান নিয়ে শুরু হওয়া তিন দিনের এ উত্সব চলবে রবিবার পর্যন্ত। গত শুক্রবার সকালে জাতীয় নাট্যশালার উন্মুক্ত চত্বরে সারাদেশ থেকে আসা শতশত কর্মীদের নিয়ে বেলুন উড়িয়ে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার ৮ম জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। এ সময় শিমুল ইউসুফের নেতৃত্বে জাতীয় সংগীত ও দলীয় সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পীরা। জাতীয় সংগীতের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় পতাকা ও গ্রাম থিয়েটারের পতাকা উত্তোলন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী ও গ্রাম থিয়েটারের সভাপতি নাসিরউদ্দিন ইউসুফ।

উদ্বোধনের পরে আলোচনা পর্ব ও সেলিম আল দীন পদক প্রদান করা হয়। আলোচনা পর্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। গ্রাম থিয়েটারের সভাপতি নাসিরউদ্দিন ইউসুফের সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য রাখেন গ্রাম থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক তৌফিক হাসান ময়না, গ্রাম থিয়েটারের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অধ্যাপক আফসার আহমেদ ও কাজী সাইদ হোসেন দুলাল, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, সাধারণ সম্পাদক হাসান আরিফ, গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামাল বায়েজীদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের স্বপ্নদ্রষ্টা সেলিম আল দীনকে স্মরণ করেন বক্তারা।

অনুষ্ঠানে সেলিম আল দীন পদক প্রদান করা হয় বাংলাদেশ মহিলা সমিতিকে। সুস্থ সংস্কৃতি চর্চায় অবদানের স্বীকৃতি হিসেবেই মহিলা সমিতিকে এ পদক প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে একই সঙ্গে ‘মীর মকসুদ-উস-সালেহীন-বজলুল করিম সম্মাননা’ ও ‘ফওজিয়া ইয়াসমিন শিবলী পদক’ প্রদান করা হয়। ‘মীর মকসুদ-উস-সালেহীন-বজলুল করিম সম্মাননা’ প্রদান করা হয় আহমেদ ইকবাল হায়দারকে। ‘ফওজিয়া ইয়াসমিন শিবলী পদক’ প্রদান করা হয় নাট্যকর্মী রুমা মোদককে।

সম্মেলনের পাশাপাশি প্রতিদিন সন্ধ্যায় জাতীয় নাট্যশালায় নাটক মঞ্চস্থ হবে।

উত্তরণবার্তা/এআর
 



পুরনো খবর