লেখাপড়া করে মেধা অর্জন করতে হবে : রাষ্ট্রপতি     সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ, ভূমিদস্যু, দুর্নীতিবাজ ও মাদক ব্যবসায়ীরা সাবধান     জিসানের মুক্তির খবর ভিত্তিহীন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী     বুয়েট আন্দোলনে শিবির-ছাত্রদল সক্রিয় : তথ্যমন্ত্রী     হাজিবিস মোকাবেলায় ২৭ হাজার সেনা, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৩     উচ্চফলনশীল নতুন ধান উদ্ভাবন করলেন বাকৃবির ভিসি     ছেলে এবং মেয়ে শিশুর সমতা নিশ্চিতে বৈষম্যহীন অনুকূল পরিবেশ গড়ে তুলতে হবে     পুলিশের ৫৮ এএসপি পদোন্নতি পেয়ে অতিঃ পুলিশ সুপার হলেন    

ইসরায়েলের পার্লামেন্টে প্রধান বিরোধী দল হতে পারে আরব জোট

  সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯     ৩৩১     ০০:০৭     বিদেশ
--

উত্তরণবার্তা আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইসরায়েলের পার্লামেন্টে প্রধান বিরোধী দল হতে পারে আরবদের জোট। প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী বেনি গান্তেজের ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট পার্টি জাতীয় জোট সরকার গঠন করলে ইসরায়েলের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো আরবদের রাজনৈতিক দল পার্লামেন্ট নেসেটে প্রধান বিরোধী দলের আসনে বসবে।

গত মঙ্গলবার ইসরায়েলের জাতীয় নির্বাচনে প্রাপ্ত ফলাফলে দেখা গেছে, নেসেটের ১২০ আসনের মধ্যে ক্ষমতাসীন লিকুদ পার্টি পেয়েছে ৩১ আসন, ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট পার্টি পেয়েছে ৩৩ আসন, আর আরবদের দল জয়েন্ট লিস্ট পেয়েছে ১৩টি আসন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে,যদি জাতীয় সরকার গঠন করা হয়, সেক্ষেত্রে নেসেটে প্রধান বিরোধী দল হবে জয়েন্ট লিস্ট। জাতীয় সরকার গঠনে নেতানিয়াহুর আহ্বান প্রাথমিকভাবে ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট পার্টির নেতা গান্তেজ অবশ্য প্রত্যাখ্যান করেছেন। তবে সেই জাতীয় সরকার গঠনেরই বাস্তব সম্ভাবনা রয়েছে শেষ পর্যন্ত।

২১ শতাংশের আরব সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধি জয়েন্ট লিস্ট কখনোই ইসরায়েল সরকারের অংশ হতে পারে নি। তবে এবার দলটি যদি বিরোধী দলের আসনে বসলে ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের নিয়মিত ব্রিফিং পাবেন দলটির ৪৪ বছর বয়সী নেতা আয়মান ওদেহ। এছাড়া ইসরায়েল  সফরে এলে বিভিন্ন রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎও করতে পারবেন তিনি। শুধু তাই নয়, সংখ্যালঘু আরবদের ওপর সংখ্যাগুরু ইহুদিদের বৈষম্যমূলক আচরনের কথা জানানোর বড় একটি প্ল্যাটফর্ম পাবে জয়েন্ট লিস্ট।

ইসরায়েলের উত্তরে হাইফা এলাকায় নিজের বাড়িতে সাংবাদিকদের প্রতিক্রিয়া জানাতে যেয়ে ওদেহ বলেন, ‘এটা একটি আকর্ষনীয় অবস্থান, যেটি কখনোই আরব জনগোষ্ঠী আসা কেউ অর্জন করতে পারেনি।’

অবশ্য জাতীয় সরকার গঠন না হলেও পার্লামেন্টে আরবদের একক দল হিসেবে একক অবস্থানে থাকবে জয়েন্ট লিস্ট। সে ক্ষেত্রে ক্ষুদ্র আরব দলগুলোর নিশ্চিত সমর্থন পাবেন ওদেহ।

সেদিকে ইঙ্গিত করেই ওদেহ’র দল হাদাশের অন্যতম নেতা আেইদা তৌমা স্লিম্যান বলেন, ‘অন্য দলগুলোর জন্য আয়মান ওদেহকে বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে মেনে নেওয়া এবং আমাদের সমাজের স্বীকৃতি ও বৈধতা দেওয়া ছাড়া উপায় নেই।’

আরব আইনপ্রণেতারা বরাবরই পশ্চিম তীর ও গাজায় ইসরায়েলি দখলদারিত্ব অবসানের আহ্বান জানিয়ে আসছে। পার্লামেন্টে আরব জোট বিরোধী দলীয় অবস্থানে গেলে হয়তো তা ফিলিস্তিনি জনগণের জন্য কিছুটা শান্তির সুবাতাস বয়ে আনবে।

উত্তরণবার্তা/এআর

 



পুরনো খবর