প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্ক যাচ্ছেন আজ     নিয়মরক্ষার ম্যাচে আফগানদের বিপক্ষে কাল জিততে চায় জিম্বাবুয়ে     হাওয়া ভবন করে দুর্নীতি-কমিশন বাণিজ্যকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছিল বিএনপি- তথ্যমন্ত্রী     জানি, কাজটা কঠিন, বাধা আসবেই, তবু করব: প্রধানমন্ত্রী     বনানী এফআর টাওয়ারের পেছনে আগুন     পাসপোর্টের নতুন ডিজি মেজর জেনারেল সাকিল     কাজের মান বুঝে বিল পরিশোধ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী     আফগানিস্তানে গাড়ি বোমা হামলায় ১০ জন নিহত    

প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের জাতীয় রপ্তানি ট্রফি অর্জন

  সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৯     ২৬     ০১:০২     জাতীয় সংবাদ
--

উত্তরণবার্তা অর্থনীতি ডেস্ক : দেশের রপ্তানি বাণিজ্য অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরের জন্য বস্ত্র খাতে জাতীয় রপ্তানি পদক অর্জন করেন। কোম্পানির পক্ষে এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাখাওয়াত হোসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট হতে উক্ত ট্রফি গ্রহণ করেন।

রপ্তানি তালিকায় আরও নতুন পণ্য যোগ করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অর্থনৈতিক কূটনীতির মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। তিনি বলেন, জনগণের ক্রয়ক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষেই সরকার কাজ করছে। রোববার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জাতীয় রপ্তানি ট্রফি বিতরণ অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি।

এ সময় শিল্পাঞ্চল গড়ে তোলার সময় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিবেশ সংরক্ষণের ওপর গুরুত্ব দিতে উদ্যোক্তাদের নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা। ক্রম অগ্রসরমান বাংলাদেশের বর্তমান উন্নয়ন যাত্রায় গেলো কয়েক বছরের রপ্তানি প্রবৃদ্ধির রেকর্ড নিঃসন্দেহে শক্তিশালী করেছে অর্থনীতিকে; বিশ্ব পরিমণ্ডলে উজ্জ্বল করেছে বাংলাদেশের মুখ।

১০ বছর আগেও যেখানে বার্ষিক রপ্তানির অংক ১৪ বিলিয়নে ঘুরপাক খেয়েছে, তখন গেলো অর্থবছরে দেশের রপ্তানি আয় ৪৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। লক্ষ্য রয়েছে ২০২১ সাল নাগাদ ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বাংলাদেশ অর্জন করবে রপ্তানি থেকে।

অর্থনীতির এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় রপ্তানিকারকদের উৎসাহিত করতে প্রতিবছরের মতো এবারও আয়োজিত হলো জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান অনুষ্ঠানের। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য ২৮ ক্যাটাগরিতে দেশ সেরা ৬৬ জনকে জাতীয় রপ্তানি ট্রফি তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী রপ্তানির বাজারে নতুন পণ্য যোগ করার পাশাপাশি অর্থনৈতিক কূটনীতি কাজে লাগানোর আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষের জীবনমান উন্নত করতে আমরা সক্ষম হয়েছি। দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

শেখ হাসিনা বলেন, বিনিয়োগ পরিস্থিতি আরও ত্বরান্বিত করতে ব্যাংকের সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার চেষ্টা করছে সরকার। সচেতন থাকতে বলেন, পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখার ওপরও। প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিল্পোন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিবেশ সংরক্ষণের ওপরও খেয়াল রাখতে হবে।

সরকার ২০২৩-২৪ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি ডাবল ডিজিটে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ব্যবসা করতে আসেনি।

উত্তরণবার্তা/এআর



মা হতে চান প্রিয়াঙ্কা

  সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯

পুরনো খবর