লেখাপড়া করে মেধা অর্জন করতে হবে : রাষ্ট্রপতি     সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ, ভূমিদস্যু, দুর্নীতিবাজ ও মাদক ব্যবসায়ীরা সাবধান     জিসানের মুক্তির খবর ভিত্তিহীন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী     বুয়েট আন্দোলনে শিবির-ছাত্রদল সক্রিয় : তথ্যমন্ত্রী     হাজিবিস মোকাবেলায় ২৭ হাজার সেনা, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৩     উচ্চফলনশীল নতুন ধান উদ্ভাবন করলেন বাকৃবির ভিসি     ছেলে এবং মেয়ে শিশুর সমতা নিশ্চিতে বৈষম্যহীন অনুকূল পরিবেশ গড়ে তুলতে হবে     পুলিশের ৫৮ এএসপি পদোন্নতি পেয়ে অতিঃ পুলিশ সুপার হলেন    

মাত্র ৫ দিনে ওজন কমাবে আলু

  মে ১৮, ২০১৯     ৩৮৭     ১২:১৮ অপরাহ্ণ     বিনোদন
--

উত্তরণবার্তা লাইফস্টাইল ডেস্ক : বাড়তি ওজন মানেই বাড়তি বোঝা। আবার ঝুঁকিপূর্ণও। স্থূল শরীর ও মনে নানা রোগ বাসা বাঁধে। স্থূল ব্যক্তিদের ডায়াবেটিস সাধারণ মানুষের তুলনায় বেশি হয়। হৃদরোগের ঝুঁকি বেশি। এমনকি মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হওয়ারও ঝুঁকি থাকে।

বেশি মোটা ব্যক্তির মেরুদণ্ড, কোমর ও হাঁটুতে ব্যথা বা প্রদাহ বেশি মাত্রায় দেখা দেয়।

এছাড়া স্থূলকায়রা ঘুমে নাক ডাকেন বেশি, তাদের স্লিপঅ্যাপনিয়া জাতীয় রোগ বেশি হয়। শ্বাসপ্রশ্বাসের অসুবিধা হয়।

যে কারণে ওজন কমাতে কতই না বুদ্ধি, নিয়ম পালন করে থাকি আমরা। ওজন ঝরাতে বা ওজন যেন আর না বাড়ে তাই খাবারের মেন্যু থেকে আলু সরিয়ে দেন।

অনেকের ধারণা আলু খেলে ওজন বাড়ে। কিন্তু সাম্প্রতিক এক গবেষণা বলছে, এটি সম্পূর্ণ ভুল ধারণা।

তারা বলছেন, আলু ওজন বাড়ায় না উল্টো দ্রুত ওজন নিয়ন্ত্রণে আনতে আলু বেশ উপকারী।

‘ইয়োরোপিয়ান ফুড ইনফরমেশন কাউন্সিল’-এর গবেষক দল এমনটাই দাবি করেছেন।

কিন্তু তাই বলে ইচ্ছামতো পেট পুরে আলু খেলে ওজন কমবে না বরং বাড়বে। কোনো ফলই পাওয়া যাবে না।

নিয়মিত আলু খেয়ে ওজন কমাতে হলে ব্যক্তিকে সঠিক পদ্ধতি মেনে খেতে হবে।

গবেষক দলটির যুক্তি, সামান্য পরিমাণে আলু খেলেই পেট বেশিক্ষণ ভরা থাকে। তাই যারা বারবার খেতে পছন্দ করেন ও এভাবে ওজন বাড়িয়ে ফেলেন তাদের খাবার মেন্যুতে আলু রাখা উৎকৃষ্ট একটি উপায়। তাদের ডায়েটে আলু রাখলেই চলবে।

পুষ্টিবিদরা বলেন, সহজেই হজম হওয়া খাদ্যের অন্যতম আলু। আলু খেলে শরীর তরতাজা থাকে। তাই শরীরের বাড়তি ওজন দ্রুত কমাতে চাইলে কয়েকটি নিয়ম মেনে আলু খেলেই ফল মিলবে।

ওজন কমাতে আলু খাওয়ার উপায়: ১) অন্তত টানা পাঁচ দিন পেট ভরে শুধু সিদ্ধ আলু খেতে হবে। এই পাঁচ দিনে অন্য কোনো খাবার খাওয়া চলবে না।

২) শুধু সিদ্ধ আলু অনেকেই খেতে পারেন না। যারা একেবারেই তা খেতে না পারেন না তার সিদ্ধ আলুর সঙ্গে সামান্য লবন মিশিয়ে নিতে পারেন। তবে অন্য কোনো মশলা বা মুখরোচক চাট মশলা জাতীয় কিছু মেশানো যাবে না এই আলুতে।

৩) যাদের চা, কফির অভ্যাস তারা আলুর এই বিশেষ ডায়েট চলাকালীন দুধ ছাড়া এসব পানীয় গ্রহন করতে হবে।

৪) আলুর এই বিশেষ ডায়েটে থাকাকালীন এই পাঁচ দিন কোনোরকম ভারী ব্যায়াম বা ঘাম ঝড়ানো পরিশ্রম করা যাবে না।

৫) এই পাঁচ দিন নিত্য প্রয়োজনীয় ওষুধ খেতেই পারেন। তবে কোনোরকম ফুড সাপ্লিমেন্ট খাওয়া চলবে না।

টানা পাঁচ দিন এই আলুই খেয়ে থাকতে হবে! কীভাবে সম্ভব এমন প্রশ্নের জবাব আগেই দিয়ে রেখেছেন ‘ইয়োরোপিয়ান ফুড ইনফরমেশন কাউন্সিলের গবেষকরা।

তারা বলছেন, ওজন কমাতে মাসের পর মাস জিমে গিয়ে ঘাম ঝরানো, সকাল-বিকাল পার্কে দৌড়ানো, নানা ধরনের যন্ত্রাদি কিনে পয়সা খরচ করানো চাইতে পাঁচ দিন সিদ্ধ আলু খাওয়াটাই অনেক কম কষ্টের। আর বিষয়টি ফলদায়কও।

উত্তরণবার্তা/এআর
 



পুরনো খবর