ডিএসসিসির বিশ্ব রেকর্ড বঙ্গবন্ধুর প্রতি উৎসর্গ     শিক্ষার উন্নয়নে মুনাফার মানসিকতা ত্যাগের আহ্বান শেখ হাসিনার     প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটে অনিয়ম, লিখিত রিপোর্টের নির্দেশ     রোহিঙ্গা শিশুদের অধিকার নিশ্চিতে মিয়ানমারেও বিনিয়োগ চান শেখ হাসিনা     চট্টগ্রামে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ৫     ইলিশের উৎপাদন ৫ লাখ টন ছাড়াবে     ভোট দিলে ক্ষমতায় থাকবো, না দিলে থাকবো না: শেখ হাসিনা     রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে প্রধানমন্ত্রীর ৩ সুপারিশ    

যে গ্রামে ৪০০ বছর ধরে জন্ম নেয়নি কোনো শিশু!

  মে ১৬, ২০১৮     ১৪৮     ৯:৫২ পূর্বাহ্ন     বিদেশ
--

উত্তরণবার্তা ডেস্ক : দেখতে আর পাঁচটা সাধারণ গ্রামের মতোই। নাম শঙ্ক শ্যাম জি গ্রাম। কিন্তু এই গ্রামের রয়েছে অদ্ভুত এক রীতি। এখানে ৪০০ বছর ধরে কোনো শিশু জন্ম নেয়নি। ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাজগড় জেলায় অবস্থিত গ্রামটি।

গ্রামের প্রবীণদের দাবি অনুযায়ী, ষোড়শ শতক থেকেই এমন রীতি চলে আসছে এখানে। গ্রামের লোকদের বিশ্বাস, এই গ্রামে ঈশ্বরের অভিশাপ রয়েছে। এই গ্রামে যদি কোনো শিশু জন্ম নেয়, তাহলে সেই শিশুটি বিকলাঙ্গ হয়ে যাবে, না হলে শিশুটির মা মারা যাবেন। গ্রামের প্রবীণদের কথায়, ষোড়শ শতকের এই গ্রামটিতে একটি মন্দির নির্মাণের কাজ চলছিল। সে সময় এক মহিলা গম ভাঙতে শুরু করেন। সেই আওয়াজের ফলে নির্মাণ কাজে ব্যাঘাত ঘটায় ক্ষুব্ধ হন স্বয়ং ঈশ্বর। এতে অভিশপ্ত হয় গোটা গ্রাম।

গ্রামপ্রধান নরেন্দ্র গুর্জর জানান, এই গ্রামে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের জন্য গ্রামের সীমানার বাইরে একটি ঘর তৈরি করে দেয়া হয়েছে। তাছাড়া ৯০ শতাংশ মহিলা সন্তান প্রসব করেন হাসপাতালে। জরুরি পরিস্থিতির সময় গ্রামের সীমানার বাইরে যে ঘরটি তৈরি করা হয়েছে, সেখানেই সন্তান জন্ম দেন প্রসূতিরা। গ্রামের বাসিন্দারা জানিয়েছেন, গ্রামের মধ্যে মদ কিংবা মাংসও খাওয়া হয় না। ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট রাখতেই নাকি এই রীতি চালু রয়েছে।

উত্তরণবার্তা/এআর
 



সিলেটে মাছের পেটে ৬১৪ ইয়াবা

  সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

নতুন আর্জেন্টিনা পুরনো ব্রাজিল

  সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৮     ৭৮১১

যমজ লাল্টু-পল্টুর দাম ২০ লাখ

  আগস্ট ১২, ২০১৮     ৪৫৪৫

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের সূচি

  জুন ০৬, ২০১৮     ৪২৩৫

পুরনো খবর